প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:মানববন্ধনে দেশনেত্রীর মুক্তি আসবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নাল আবদিন ফারুক। তিনি বলেছেন, শুধু মানববন্ধন করে ফ্যাসিস্ট আওয়ামী সরকারের হাত থেকে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব হবে না। এর জন্য সুসংগঠিত হয়ে আওয়ামী লীগ বিরোধী লড়াইয়ে রাজপথে নামতে হবে।

 

 

 

আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দেশজুড়ে গুম-খুন-হত্যার প্রতিবাদে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।ফারুক বলেন, দলকে ঐক্যবদ্ধ করে বিশেষ করে ছাত্রদলের কমিটি দিতে হবে। কোনো পকেট কমিটি দিয়ে নয়, ঐক্যবদ্ধ কমিটি দিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে রাজপথে নামতে হবে এবং খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। অন্যথায় বেগম জিয়ার মুক্তি হবে না।

 

 

 

সাবেক এই চিফ হুইপ বলেন, আমি মনে করি এই সরকারের পতন করতে হলে কঠোর আন্দোলন করতে হবে। কারণ এই সরকার জেনে গেছে রাজনীতির কৌশলগতভাবে বিএনপিকে এক ধমক দিলে তারা ঘরে ফিরে যাবে, রাস্তায় নামবে না। আমি আশ্বস্ত করে বলতে পারি- এখনও আওয়ামী লীগের চেয়ে ও অন্যান্য দলের চেয়ে তৃণমূলে ৪০০ গুণ বেশি বিএনপির কর্মী আছে।

 

 

 

সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, এই সরকারের লজ্জা নাই। যার ফলে সাগর-রুনি হত্যা মামলা ৭ বছরেও শেষ হয় না। গুম-খ‌ুন চলতে থাকলেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পদত্যাগ করেন না। এই সরকারের বিরুদ্ধে আমার আর কিছু বলার নাই।মানববন্ধনে বিএনপির সহ-সমাজকল্যাণবিষয়ক সম্পাদক শাহাবুদ্দিন সাবু, নির্বাহী কমিটির সদস্য আলমগীর হোসেন, কৃষক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল ও আমানুত উল্লাহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।