প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:বাংলাদেশের শাসনব্যবস্থা ২০৪১ সাল নাগাদ বিকেন্দ্রীকরণ করা হবে বলে বুধবার জাতীয় সংসদে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।সরকারি দলের সংসদ সদস্য এম আবদুল লতিফের (চট্টগ্রাম-১১) প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘রূপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নের মাধ্যমে বাংলাদেশ ২০৪১ সালের মধ্যে একটি শান্তিপূর্ণ, সমৃদ্ধ, সুখী ও উন্নত দেশে পরিণত হবে। এ সময়ে শাসনব্যবস্থা বিকেন্দ্রীকরণ করা হবে।’

 

 

সরকারি ব্যয়ের সিংহভাগ স্থানীয় পর্যায়ে বাস্তবায়িত হবে বলেও জানান তিনি।‘স্থানীয় প্রশাসন এ (সরকারি তহবিল ব্যয়ের) দায়িত্ব পালন করবে। স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় প্রশাসনের মধ্যে সুস্পষ্ট সমন্বয়ে পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হবে,’ যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।তিনি বলেন, সুশাসন এবং জনগণের সক্ষমতা ও ক্ষমতায়ন হবে দেশের অগ্রগতির মূল নীতি।

 

 

বাংলাদেশের অর্থনীতি শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, রপ্তানি ও প্রবাসী আয়ে উচ্চ প্রবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে বিনিয়োগ ক্রমাগত বাড়ছে এবং বৈদেশিক লেনদেনে ভারসাম্য রয়েছে।তিনি আরও জানান, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে এবং বাজেট ঘাটতি জিডিপির ৫ শতাংশের মধ্যে সীমাবদ্ধ আছে।

 

 

এটা আশা করা যায় যে আগামীতে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি আরও বেগবান হবে, বলেন তিনি।‘২০৪১ সালে বাংলাদেশ মাথাপিছু ১৬ হাজার মার্কিন ডলার আয়ের উন্নত দেশে পরিণত হবে এবং এ সোনার বাংলায় দারিদ্র্য দূর অতীতের বিষয় হবে,’ যোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।

 

 

তিনি বলেন, জাতিসংঘের ‘বিশ্ব অর্থনীতির অবস্থা ও সম্ভাবনা ২০১৯’ শীর্ষক প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০১৮ সালে বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত প্রবৃদ্ধি অর্জনকারী প্রথম ১০ দেশের একটি ছিল বাংলাদেশ।