প্রথমবার্তা প্রতিবেদক:
হাতের আঙুলে সোনার আংটি থাকার কারণে ধ্বংসস্তুপ থেকে বেঁচে ফিরতে পারলেন এক তরুণী। গত মঙ্গলবার ভারতের মুম্বাইয়ের ডোংরিতে ভেঙে পড়ে এক বহুতল ভবন। 

ওই ঘটনায় নিহতের সংখ্যা এরই মধ্যে বেড়ে ১৪ জন। জানা গেছে, ধ্বংস্তূপের মধ্যে লোহার একটি বিমের নিচে প্রায় দু’ঘণ্টা চাপা পড়েছিলেন জিনাত রেহমান সালমানি। তার হাতের আঙুলে সোনার আংটি দেখে উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা বুঝতে পারেন, সেখানে কেউ চাপা পড়ে আছে। আর তার পরই শুরু হয় উদ্ধার কাজ।

দেড় ঘণ্টা ধরে চেষ্টার পর ওই তরুণীকে উদ্ধার করা হয়। জানা গেছে, বর্তমানে তিনি সুস্থ আছেন। এদিকে, বুধবার সকালে ওই ধ্বংসস্তূপ থেকে আরো তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এখনো ধ্বংসস্তূপের নীচে অনেকে আটকে রয়েছেন বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন উদ্ধারকর্মীরা। সে কারণে নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

এই বিভাগের আরো খবর :

রাতে দেরিতে ঘুমিয়ে থাকেন মেধাবীরা!
লাইভ অনুষ্ঠানে নারীর বুকে হাত দিয়ে সরালেন সাংবাদিক
লাজুক স্বামীর প্রশ্ন বাসর রাতে
চুম্বনের চুম্বকে কাছে টানুন পার্টনারকে!
নিজে দাঁড়িয়ে থেকে স্ত্রীকে বিয়ে দিলেন স্বামী
খাবারের পর ‘ডেজার্ট’ হিসেবে মহিলাদের পরিবেশন করা যে অঞ্চলের রীতি
সব জেনেও কি চুপ ছিলেন বাবা রাম রহিমের স্ত্রী?
পুরুষরা টের পায় কী করে মেয়েরা না বললেও?
কামদেব মন্ত্রের সাহায্যে কীভাবে আকর্ষণ করা যায় যেকোনো নারী-পুরুষকে
১২৮ বছর বয়সী নারী ইস্তামুলাভার বেঁচে থাকাটাই ‘শাস্তি’
জেনে নিন ভারতে কবে শুরু হয় রেলযাত্রা
এই বাচ্চারা যারা তাদের বাবার নাম ডুবিয়ে দিয়েছে এবং ফটোশুটের দারুন উদাহরণ হয়ে উঠেছে…
পাবলিক টয়লেটেই ঘুমিয়ে পড়ে সিলটি!
এবার মেলানিয়ার মাথায় স্কার্ফ!