প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:দেশের সকল সরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের বিনামূল্যে পরীক্ষার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রণালয়।

 

 

 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়ে বলেন, সরকারি হাসপাতালে সব ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা এমনিতেই অপেক্ষাকৃত কম মূল্যে (ইউজার ফি) করা হয়ে থাকে।

 

 

বর্তমানে ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় দ্রুত রোগী শনাক্ত ও বিশেষজ্ঞদের তৈরি গাইডলাইন অনুযায়ী চিকিৎসা প্রদানের লক্ষ্যে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পরীক্ষাটি করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

 

 

তিনি জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কাছে ৪০ হাজারেরও বেশি ডেঙ্গু পরীক্ষার কিটস রয়েছে। এছাড়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার কাছে আরও এক লাখ ডেঙ্গু পরীক্ষার কিটস সহায়তা প্রদানের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

 

 

সরকারি হাসপাতাল ছাড়া বেসরকারি হাসপাতালগুলোকেও ডেঙ্গুসহ অন্যান্য পরীক্ষা-নিরীক্ষার ইউজার ফি সহনীয় মাত্রার রাখার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে বলে তিনি জানান।

 

 

ডেঙ্গু পরিস্থিতি ক্রমেই ক্রমেই ভয়ংকর রূপ নিচ্ছে। ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগিতে ভরে গেছে হাসপাতালগুলো। প্রতিদিনই রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, যা আগের রেকর্ড ভেঙে দিচ্ছে। ২১ জুলাই ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ছিল ৩১৯ জন।

 

 

এরপরের তিন দিন রোগীর সংখ্যা যথাক্রমে ৪০৮, ৪৭৩ ও ৫৬০ জনে দাঁড়িয়েছে। চিকিত্সা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন ডাক্তাররা। জ্বর হলেই ডেঙ্গু আতঙ্ক নিয়ে হাসপাতালে ছুটছেন রোগীরা। সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ঠাঁই মিলছে না অনেক রোগীর।

 

 

এ নিয়ে চলতি জুলাই মাসে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৬ হাজার ৪২১ জনে দাঁড়াল। বেসরকারি হিসাবে এই সংখ্যা ৩/৪ গুণ বেশি।