প্রথমবার্তা স্পোর্টস ডেস্ক : বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগে এক বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ হন অস্ট্রেলিয়ার তিন ক্রিকেটার স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন বেনক্রফট।

 

 

 

নির্বাসন শেষে অ্যাশেজ দিয়ে টেস্টে প্রত্যাবর্তন ঘটেছে ডেভিড ওয়ার্নারের।

 

 

 

 

এদিকে দর্শক বিদ্রূপের মুখে তাদের পড়তে হবে, সেই আশঙ্কা ছিলই। গতকাল বৃহস্পতিবার এজবাস্টনের বার্মিংহ্যামে অজি একাদশে স্মিথের নাম শোনা মাত্রই ব্যঙ্গাত্মক শুরু করেন তারা।

 

 

 

 

এমনিতেই বিতর্কে দ্বৈরথ শুরু হয়েছে। প্রথমে করমর্দন অনুষ্ঠান বাতিল।

 

 

 

পরে ডেভিড ওয়ার্নারের উদ্দেশে শিরিশ কার্ড প্রদর্শন। স্বভাবতই এ নিয়ে মাঠের ভেতরে ও বাইরে জমে উঠেছে লড়াই।

 

 

 

প্রথম দিনে ময়দানি যুদ্ধটাও হয়েছে হাড্ডাহাড্ডি।

 

 

 

 

 

বিষয়টি এখানেই ক্ষ্যান্ত হননি। ডেভিড ওয়ার্নার আউট হলে তা অন্য মাত্রা পায়। স্টুয়ার্ট ব্রডের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি।

 

 

 

 

পথিমধ্যে গ্যালারির একটা অংশের দর্শক দাঁড়িয়ে তাকে ‘হলুদ কার্ড’-দেখান। সেগুলো ছিল শিরিশ কাগজ।

 

 

 

 

এদিকে ঘটনা এতেই সীমাবদ্ধ থাকেনি। সোশ্যাল মিডিয়া টুইটারে নিজেদের অফিসিয়াল পেজে এর ভিডিও আপলোড করেছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।