28 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক: হুট করে দেখলে যে কেউই ভড়কে যেতে পারেন। মানুষ নয়, কিন্তু অনেকটা মানুষের চেহারার মতোই দেখতে। আর্জেন্টিনার ভিলা আনা গ্রামে জন্ম নেওয়া একটি বাছুরের এমন অবয়ব দেখে শোরগোল পড়ে গেছে পুরো এলাকায়। ছোট নাক আর মুখের সামঞ্জস্য দেখলে মনেই হবে না এটি একটি বাছুর। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিরল জেনেটিক পরিবর্তনের কারণে এমন ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

 

 

 

 

প্রতিবেদনে বলা হয়, এমন শারীরিক গঠন নিয়ে জন্ম নেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যু হয় বাছুরটির।জেনেটিকস বিশেষজ্ঞ নিকোলাস ম্যাগনাগো জানান, বিরল জেনেটিক মিউটেশনের কারণে এমনটি ঘটে থাকতে পারে।

 

 

 

 

মিউটেশন হলো ডিএনএ অনুক্রমের পরিবর্তন, যা ওই বাছুরে স্থানান্তরিত হয়েছে। এটি একটি স্বতঃস্ফূর্ত পরিবর্তন, যা মিউটেজেনস, শারীরিক, রাসায়নিক বা জৈবিক এজেন্টগুলোর মাধ্যমে হয়।

 

 

 

 

এর আগে চলতি বছরের শুরুতে ভারতের হিমাচল রাজ্যের শিমলার একটি গ্রামে দুই মাথা, চার চোখ, দুটি মুখসহ একটি বাছুরের জন্ম হয়েছিল।এর আগেও ভারতের রাজস্থান ও উদয়পুরে বিকৃত গঠনের বাছুরের জন্ম হয়েছিল। যার ফলে শোরগোল পড়ে গিয়েছিল ওইসব এলাকায়।