8 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক:  নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী সোনামসজিদ, হিলি, বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরসহ দেশের অন্যান্য স্থলবন্দরগুলোকে আরো গতিশীল এবং সোনামসজিদ ও হিলি স্থলবন্দরের বকেয়া পাওনা টাকা আদায়ের নির্দেশ দিয়েছেন।

 

 

 

 

তিনি আজ সচিবালয়ের নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষের উন্নয়ন, আর্থিক ও প্রশাসনিক বিষয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে এ নির্দেশ দেন।

 

 

 

 

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বাংলাদেশ স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান তপন কুমার চক্রবর্তী এবং নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এম এম তারিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 

 

বৈঠকে জানানো হয়, বিল অন ট্রান্সফার (বিওটি) পদ্ধতিতে পরিচালিত সোনামসজিদ ও হিলি বন্দরের অপারেটরদের কাছে যথাক্রমে প্রায় ৩ কোটি ৩৯ লাখ ও এক কোটি ৩৮ লাখ টাকা পাওনা রয়েছে। এসব বকেয়া পাওনা দ্রুত আদায়ের লক্ষ্যে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়।

 

 

 

 

বৈঠকে আরো জানানো হয়, বাংলাদেশ স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষের স্থায়ী আমানতের পরিমাণ চলতি বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত ৩৪৯ কোটি টাকা।