15 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা, রিপোর্ট:   সম্প্রতি ভোলার বোরহানউদ্দিনে ইসলামের নবীকে কটাক্ষ করে দেয়া কিছু মেসেঞ্জার পোস্ট কেন্দ্র করে পুলিশের গুলিতে চার ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।তাই ফেসবুক, টুইটার, ম্যাসেঞ্জারসহ সব ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট ব্যবহার নিরাপদে রাখতে সচেতন হওয়া জরুরি। – বিবিসি বাংলার।

 

 

 

 

সোশাল মিডিয়া ব্যবহারের ফলে যেমন এর উপকারিতা রয়েছে, তেমনি অ্যাকাউন্টটি যদি হ্যাক হয়ে যায় তা হলে ভোগান্তির শেষ নেই।তবে এখন প্রশ্ন হলো- কীভাবে সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট নিরাপদ রাখা যায়?

 

 

 

 

কখন বুঝবেন আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে- কেউ যদি আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করেন, তা হলে আপনার অ্যাকাউন্টে আপনি নিজেও পাসওয়ার্ড দিয়েও ঢুকতে পারবেন না।তবে আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে ইমেইল বা পোস্ট যেতে থাকবে। তখন আপনি বুঝবেন আপনি আপনার অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছেন।আবার এমনও হতে পারে, আপনি আপনার অ্যাকাউন্টে ঢুকতে পারছেন কিন্তু আপনার নামে আপত্তিকর মেইল বা পোস্ট দেয়া হচ্ছে; সে ক্ষেত্রে আপনি ধরে নিতে পারেন আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে।

 

 

 

 

 

করণীয় – ১. তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশকে জানান আপনার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে। সে ক্ষেত্রে জরুরি সেবার যে নম্বর ৯৯৯ রয়েছে সেখানে জানাতে পারেন।

 

 

 

 

২. এ ছাড়া ঘনিষ্ঠ বন্ধু বা পরিবারের কারও অ্যাকাউন্ট থেকে জানাতে পারেন যে আপনার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে।৩. পরিষ্কার জানিয়ে দেন, আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে যেসব পোস্ট বা ছবি শেয়ার করা হচ্ছে, সেগুলো আপনি করছেন না।

 

 

 

 

 

যেভাবে হ্যাক হয় – বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ ক্ষেত্রে একটি ‘প্রোগ্রাম ইঞ্জিনিয়ারিং’ ব্যবহার করা হয়।যেমন- অপরিচিত বা পরিচিত বা কৌতূহলোদ্দীপক ঠিকানা থেকে আপনার কাছে একটি ইমেইল পাঠানো হলো ।এটিকে বলে ‘ফিশিং’ ইমেইল।সেখানে কিছু ছবি বা ফাইল থাকতে পারে বা লিংক থাকতে পারে।আপনি সেখানে ক্লিক করলে আপনার ডিভাইসে একাটি সফটওয়্যার ঢুকে যায় এবং আপনার কার্যক্রমগুলো মনিটর বা পর্যবেক্ষণ করতে থাকে। তাই এসব বিষয় এড়িয়ে চলুন।