প্রথমবার্তা, রিপোর্ট:   বেড-টি বলে একটি কথা রয়েছে। সকালে ঘুম থেকে উঠে চা পান না করলে ঘুমই ভাঙে না অনেকের। তবে এমন অভ্যাস শরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।মানুষ সে কথা বুঝে অভ্যাসে পরিবর্তন আনলেনও যদি কোনো অবুঝ প্রাণির এ অভ্যাসের দাস হয় তো তাকে বোঝাবে কে?অবিশ্বাস্য শোনালেও যুক্তরাজ্যে এমনই এক ঘোড়া রয়েছে যে কিনা এক কাপ চা না পান করলে দৌড়ই শুরু করে না। সকালে চা না দিলে কাজ করতে অস্বীকৃতি জানায় সেই ঘোড়াটি।

 

 

 

 

 

 

ডেইলি মেইল অনলাইন জানায়, ইংল্যাণ্ডের লিভারপুলের অ্যালেরটন আস্তাবলের বাসিন্দা এই ঘোড়াটি। এর নাম জেক, বয়স ২০ বছর। পাঁচ বছর বয়স থেকেই মিরসেইসাইডের ঘোড়সওয়ার পুলিশ বিভাগে কাজ করছে জেক। আর দীর্ঘ জীবনে ঘোড়াটি চায়ে এতটাই অভ্যস্ত হয়ে গেছে যে সকালে চা না দিলে সে তার পিঠে কাউকেই নেয় না। পুলিশদের আগ্নেয়াস্ত্রকেও পরোয়া করে না সে।চা খাওয়ায় ঘোড়ার এই আসক্তির বিষয়ে জানা গেছে, প্রথমদিকে জেক তার পালনকারীর কাপ থেকে চা চুরি করে খেত। বিষয়টি ওই ব্যক্তির ভালো লেগে যায়। জেককে আর না থামানোয় ধীরে ধীরে সকালে চা পান তার অভ্যাসে পরিণত হয়।তবে এখন আর চুরি করতে হয় না জেককে। তার জন্য আলাদাভাবে চা বরাদ্দ করেছে মিরসেইসাইড পুলিশ বিভাগ। ঘন দুধের সঙ্গে দুই চামচ চিনি মেশানো চা চুকচুক করে পান করে জেক।

 

 

 

 

 

 

পুলিশ কর্মীরা জানিয়েছে, প্রতিদিন সকালে বড় কাপে করে আলাদাভাবে চা দিতে হয় জেককে। আরাম করে সেই চা পানের পরই সে কাজে যাওয়া তাগিদ দেয়। এর আগে তার পিঠে চড়ার সাহস নেই কারো।জেকের চা পানের একটি ভিডিও নিজেদের টুইটারে প্রকাশ করেছে মিরসেইসাইড। সেখানে তারা লিখেছে, এক কাপ গরম চা না পেলে জেক বিছানা থেকে উঠতেই চায় না। একবার চা পান করার পরই সে দিনের কাজের জন্য প্রস্তুত হয়ে যায়।

জেকের সেই চা পানের দৃশ্য দেখুন-