প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :    প্রতিদিনই আপনার ডক্টর অনলাইন বাংলা স্বাস্থ্য টিপস পোর্টালের ফেসবুক ফ্যানপেজে অনেক ম্যাসেজ আসে। সব ম্যাসেজর উত্তর দেওয়া সম্ভব হয় না।তাই পাঠকদের কাছে প্রশ্নটির বিস্তারিত তুলে ধরা হয় (প্রশ্নকারীর নাম ও ঠিকানা গোপন রেখে)।

 

 

 

আজকের প্রশ্ন দুধ টিপার নিয়ম জানতে চেয়ে অনেকেই আমাদের কাছে মেল পাঠিয়েছেন। জেনে নিন কিভাবে আপনার সঙ্গীর দুধ টিপবেন ও চুষবেন:-

 

 

মেয়েদের দুধ টিপার নিয়ম প্রশ্নটি অনেকের কাছে খারাপ মনে হতে পারে, তবে প্রকৃত যৌন শিক্ষা অর্জন এবং প্রকুত যৌন শিক্ষার মাধ্যমে সঙ্গীকে উত্তেজিত করে আনন্দ দিতে পারলে আপনি প্রকুত পুরুষ বলে বিবেচিত হবেন, হবেন আপনার সঙ্গীনির অতিপ্রিয়।

 

 

 

 

মনে রাখবেন দাম্পত্য জীবনে প্রকৃত সুখ টাকা পয়সা দিয়ে কেনা যায় না একথা যেকেউ জানে।দুধ টিপার কিছু স্পেশাল নিয়ম আছে কারণ দুধ/ স্তন নারীদের এমন একটি যৌন স্পর্শকাতর অঙ্গ যা বিশেষভাবে আলিঙ্গনের মাধ্যমে পূর্ণতা পায়।

 

 

 

অনেক ছেলেই জানেন না সঠিক নিয়মে মেয়েদের দুধ কিভাবে চোষা এবং টেপা যায়।অথচ শুধুমাত্র দুধে হাত এবং মুখ চালিয়ে একটি মেয়েকে ১০০% কাবু করে ফেলতে পারেন।ব্রেস্ট, মেয়েদের শরীরের আকর্ষনীয় অংশ গুলোর মাঝে একটি।সেক্সের সময় এটাকে আদর না করলে তো হয়ই না।

 

 

 

 

সেই ব্রেস্টকে স্পর্শ করার সময় কিছু জিনিস খেয়াল রাখা উচিত।তাই সঙ্গীকে খুশি করতে দুধ টিপার কিচু স্পেমাল পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করা হলোঃপ্রত্যেক মেয়েরই তার ব্রেস্ট নিয়ে আলাদা কিছু চাওয়া থাকে।

 

 

 

সেই চাহিদা গুলো প্রকৃতভাবে দুধ টিপার মাধ্যমে কিভাবে পূরণ করবেন তা নিয়েই কিছু টিপস দেওয়া হল

 

 

 

 

১/ কারো ব্রেস্ট বড় কারও বা ছোট। সে হিসাবে ব্রেস্টের স্যাটিস্ফেকশন ও আলাদা হয়। সাধারনত স্বাভাবিকের চেয়ে একটু বড় ব্রেস্টগুলো সেন্সিটিভ কম হয়, ছোট ব্রেস্টের তুলনায়।

 

 

 

এসব ব্রেস্ট সাইড দিয়ে, জিহবা দিয়ে, এবং হাত দিয়ে টিপে আদর করা উচিত। এছাড়া হাল্কা কামড় ও দেওয়া যায়। সাধারনত এসব ব্রেস্ট একটু জোড়ে চাপলেই বেশি মজা পায় মেয়েরা।

 

 

২/ ছোট ব্রেস্ট সাধারনত খুবই সেন্সিটিভ হয়। এসব ব্রেস্ট বেশি জোড়ে না টিপে হাতে পুরোটা নিয়ে আস্তে আস্তে চাপলে মেয়েরা বেশি মজা পায়। এছাড়া হাতের তালু এবং আঙ্গুল দিয়ে নিপল আদর করুন। এবং সামান্য টেনে ছেড়ে ঝাকি দিন।

 

 

 

৩/ একটু ঝোলানো ব্রেস্ট গুলো সবচেয়ে কম সেন্সিটিভ হয়। এসব ব্রেস্ট আদর করার জন্য চিত করে শুইয়ে নেওয়াই ভাল।

 

 

ব্রেস্টে বিভিন্ন ধরনের স্পর্শ সেক্সকে অনেক বেশি রঙ্গিন করে তোলে। এরকম কিছু স্পর্শের কথা বলা হল।

 

 

দুধ টিপর নিয়ম বা পদ্ধতি

১/ নিপল স্পর্শ না করে ব্রেস্টের চার দিকে হাল্কা আঙ্গুল চালান। ব্রেস্টের নিচের জায়গায় হাত ঘষুন। গলার নিচে কিস করুন। ব্রেস্টের চার পাশ লিক করুন। তার ব্রেস্টের সাথে আপনার বুক ঘষুন। এগুলো মেয়েদের জন্য অনেক জোড়ালো সেক্স টিজ।

 

 

 

২/ নিপল সাক করুন। কিন্তু প্রথমেই খুব জোড়ে নয়। আস্তে আস্তে জিহবা ঘুরিয়ে। হালকা করে কিস দিন নিপলে। আঙ্গুল তার মুখে নিয়ে ভিজিয়ে তার নিপলেই আবার লাগাতে পারেন। এতে সে অনেক বেশি টার্ন অন হয়ে পরবে। বেশ কিছুক্ষন আস্তে আস্তে সাক করুন ব্রেস্ট। সে পাগল হয়ে গেলে তবেই জোড়ে করবেন।

 

 

 

মেয়েটার কাছে এসে দুধে হাত রাখুন। মুখটা সামনে নিয়ে চুমু দিন। চুমুরত অবস্থায় দুধ দুটোকে অন্যহাত দিয়ে অনাবৃত করুন। এ সময় একটা দুধের বোটায়মুখ দিন। গাধার মত বোটা চুষতে যাবেন না। বরং আলতো ভাবে মুখের ভেতরে জিভ দিয়ে টানুন।

 

 

 

 

চোষনরত অবস্থায় দুই দুধ দু হাতে ভর্তা করতে থাকুন। দুধের কিনারার দিকে মনোযোগ দিন। দুধের কিনারায় মাখালে মেয়েরা উত্তেজিত হবে বেশী। পালা করে দুই বোটা মুখ দিয়ে চুষতে থাকুন। একফাকে গুদে হাত দিয়ে দেখুন ভিজে গেছে কি না।

 

 

 

 

৩/ নিপল আঙ্গুলের মাঝে নিয়ে ঘুরান, টুইস্ট করুন। নিপল ভিতরের দিকে হাল্কা চাপ দিন। এরপর কিছুটা জোরে চাপুন ব্রেস্ট। নিপল মুখে নিয়ে জোরে সাক করুন। ভালবাসুন তার ব্রেস্টকে।

 

 

 

১/ নিপল স্পর্শ না করে ব্রেস্টের চার দিকে হাল্কা আঙ্গুল চালান। ব্রেস্টের নিচের জায়গায় হাত ঘষুন। গলার নিচে কিস করুন। ব্রেস্টের চার পাশ লিক করুন। তার ব্রেস্টের সাথে আপনার বুক ঘষুন। এগুলো মেয়েদের জন্য অনেক জোড়ালো সেক্স টিজ।

 

 

 

২/ নিপল সাক করুন। কিন্তু প্রথমেই খুব জোড়ে নয়। আস্তে আস্তে জিহবা ঘুরিয়ে। হালকা করে কিস দিন নিপলে। আঙ্গুল তার মুখে নিয়ে ভিজিয়ে তার নিপলেই আবার লাগাতে পারেন। এতে সে অনেক বেশি টার্ন অন হয়ে পরবে। বেশ কিছুক্ষন আস্তে আস্তে সাক করুন ব্রেস্ট। সে পাগল হয়ে গেলে তবেই জোড়ে করবেন।

 

 

 

মেয়েটার কাছে এসে দুধে হাত রাখুন। মুখটা সামনে নিয়ে চুমু দিন। চুমুরত অবস্থায় দুধ দুটোকে অন্যহাত দিয়ে অনাবৃত করুন। এ সময় একটা দুধের বোটায়মুখ দিন। গাধার মত বোটা চুষতে যাবেন না।

 

 

 

 

বরং আলতো ভাবে মুখের ভেতরে জিভ দিয়ে টানুন। চোষনরত অবস্থায় দুই দুধ দু হাতে ভর্তা করতে থাকুন। দুধের কিনারার দিকে মনোযোগ দিন।

 

 

 

 

দুধের কিনারায় মাখালে মেয়েরা উত্তেজিত হবে বেশী। পালা করে দুই বোটা মুখ দিয়ে চুষতে থাকুন। একফাকে গুদে হাত দিয়ে দেখুন ভিজে গেছে কি না।

 

 

 

 

৩/ নিপল আঙ্গুলের মাঝে নিয়ে ঘুরান, টুইস্ট করুন। নিপল ভিতরের দিকে হাল্কা চাপ দিন। এরপর কিছুটা জোরে চাপুন ব্রেস্ট। নিপল মুখে নিয়ে জোরে সাক করুন। ভালবাসুন তার ব্রেস্টকে।