প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :  সুখি হতে স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য কত হওয়া উচিৎ- আমেরিকার আটলান্টার এমোরি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি প্রতিনিধি দল প্রায় তিন হাজার মানুষের উপর এক সমীক্ষা চালিয়ে এই তথ্য প্রকাশ করেছে।

যদি স্বামী এবং স্ত্রীর মধ্যে বয়সের পার্থক্য কম হয়, তাহলে সংসারের স্থায়িত্ব বেশি হয়, একে অপরের মন বুঝে চলার ক্ষমতা জন্মায় একে-অপরের সঙ্গে।গবেষণায় দেখা গিয়েছে, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বয়সের পার্থক্য বাড়ার সঙ্গে বিচ্ছেদের হারও বেড়ে গিয়েছে। স্বামী-স্ত্রীর বয়সের পার্থক্য ৫ বছর হলে তাদের বিচ্ছেদের আশঙ্কা সমবয়সী দম্পতির তুলনায় ১৮ শতাংশ বেশি।

 

 

 

 

 

দেখা গিয়েছে, বয়সের পার্থক্য ১০ বছর হলে বিচ্ছেদের আশঙ্কা ৩৯ শতাংশ এবং ২০ বছর হলে ৯৫ শতাংশ বেড়ে যায়। তবে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্কের উপরও বিচ্ছেদের ব্যাপার অনেকাংশে নির্ভরশীল। সম্পর্ক যত ঘনিষ্ঠ হবে বিচ্ছেদের সম্ভাবনা ততই কম।বয়সের বেশি ব্যবধানে বিয়ের পরেও কমপক্ষে ২ বছর একসঙ্গে থাকলে বিচ্ছেদের আশঙ্কা ৪৩ শতাংশ কমে আসে। আবার ১০ বছর একত্রে থাকলে তা ৯৪ শতাংশ পর্যন্ত কমে আসে।

এই বিভাগের আরো খবর :

ঠিক কতক্ষণ দীর্ঘ সঙ্গম চান মহিলারা?
পুরুষ শরীরে যা খোঁজে মেয়েরা!
এই উত্তেজক চিত্রগুলি নিশ্চিতরূপে আপনার প্যান্ট ভিজিয়ে দেবে। বাচ্চারা দুরে ১৮+///…
আপনি কি জানেন সেক্সের সময়ে প্রচন্ড স্বার্থপর হন পুরুষেরা?
সুখ শুধু পুরুষাঙ্গের দৈর্ঘ্যেই না!
মিলনের ফলে শারীরিক উপকারিতা
ফুলশয্যার রাতে নববধূর মনে যে সাত ভয় তাড়া করে
মাসিক চলাকালীন সময়ে সহবাস করা যাবে কিনা, সহবাস করলে কি কোন ক্ষতি হবে?
পুরুষালি সমস্যার ঘরোয়া উপায়ে সমাধান
করার জন্য দশবার ফোন করত ও আমাকে
তিল বলে দিবে, কার বিবাহিত জীবন কেমন যাবে
অনিরাপদ সহবাসের পর যা করনীয়
আপনি কি জানেন ?মেয়েদের শরীর নরম হয় কেন
বাচ্চারা এই লেখা পড়বে না, PENIS -এর এই রহস্য বেশির ভাগ পুরষেরই অজানা