প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :   পুরুষদের জন্য আসছে- গর্ভনিরোধক ওষুধ খেয়ে প্রয়োজনে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার হাত থেকে রক্ষা পান মহিলারা। কিন্তু ভাবুন তো পুরুষদের ক্ষেত্রেও যদি এমনটা প্রযোজ্য হত! না না, গর্ভনিরোধক নয়, তবে সব ঠিকঠাক চললে এবার থেকে জন্ম নিয়ন্ত্রক ওষুধের মাধ্যমে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে পার্টনারের সাহায্য করতে পারবেন পুরুষরাও।

 

 

 

 

 

কীভাবে? EP055 মিশ্র পদার্থটি নিয়ে চলছে গবেষণা। যা জন্মনিয়ন্ত্রক হিসেবেই কাজ করবে। পার্শপ্রতিক্রিয়া? না, নেই। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এই বিশেষ মিশ্র পদার্থটি কোনও পার্শপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই পুরুষদের স্পার্ম প্রোটিনকে বেঁধে রাখে এবং তার গতি কমিয়ে দেয়। তবে এতে হরমোনের উপর কোনও প্রভাব পড়বে না।উত্তর ক্যারোলিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক মাইকেল ও’রান্ড জানাচ্ছেন, এই পদার্থটি স্পার্মের চলাচলের গতিকে স্লথ করে দেয়। যার ফলে মহিলাদের গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনা কমে।

 

 

 

 

 

আর এভাবেই কোনও পার্শপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই জন্ম নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে এটি। পুরুষদের ক্ষেত্রে বর্তমানে জন্ম নিয়ন্ত্রক হিসেবে বড় ভূমিকা পালন করে কন্ডোম। যা মিলনের ক্ষেত্রে অত্যন্ত নিরাপদ। তবে গবেষকদের মতে, কন্ডোম পুরুষদের স্বাভাবিক হরমোনের গতিবিধিতে প্রভাব ফেলে।

 

 

 

 

 

মহিলাদের গর্ভনিরোধক ট্যাবলেট তাঁদের হরমোনে সামান্য হলেও প্রভাব ফেলে। যে কারণে অতিরিক্ত পরিমাণ এই ট্যাবলেট খেতে নিষেধ করে থাকেন চিকিৎসকরা। ঠিক একইভাবে কন্ডোম প্রভাব ফেলে পুরুষদের হরমোনের স্বাভাবিক গতিকে।

 

 

 

 

 

গবেষণার সময় EP055-এর হাইডোজ পুরুষদের উপর প্রয়োগ করে দেখা গিয়েছে, তাঁদের শরীরে কোনও পার্শপ্রতিক্রিয়া হয়নি। তবে এ জিনিস বাজারে আসার আগে আরও কিছু পরীক্ষা-নিরিক্ষার প্রয়োজন বলে জানাচ্ছেন গবেষকরা।এই মিশ্র পদার্থকে ট্যাবলেটের আকারে আনারই চেষ্টা চলছে। এই ট্যাবলেট ভারতের মতো সোয়া কোটির দেশের জন্ম নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করবে বলেই ধারণা বিশেষজ্ঞদের।