প্রথমবার্তা ডেস্ক, রিপোর্টঃ      বিয়ে যেন নেশায় পরিণত হয়েছে ওস্তাদ কাশেমের। ২২ বছরের এই যুবক ইতোমধ্যে বিয়ে করেছেন ৮টি। কেন তার এই বিয়ের নেশা শুনলে যে কেউ অবাক হবেন।

 

 

 

 

 

গ্রাম থেকে অল্প বয়সী তরুণীদের চাকরি সহ বিভিন্ন ধরনের প্রলোভন দেখিয়ে নিয়ে আসতেন শহরে। সেই তরুণীদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলতেন তিনি।সংসার কিংবা বংশরক্ষার জন্য বিয়ে করতেন না কাশেম।

 

 

 

 

 

নারী ব্যবসার তাগিদেই একের পর এক বিয়ে। বিয়েকে ফাঁদ হিসেবে ব্যবহার করতেন তিনি। সুখী জীবনের স্বপ্ন দেখিয়ে দরিদ্র মেয়েদের ধরার ফাঁদ পাতেন কাশেম।

 

 

 

 

 

এরপরে সেই মেয়েদের ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লিসহ বিভিন্ন দেশে দালালদের কাছে বিক্রি করে দিতেন। এভাবেই তিনি কামিয়েছেন কোটি টাকা।

 

 

 

 

 

এই বিভাগের আরো খবর :

অনন্যা পুরস্কার পাচ্ছেন ১০ নারী
'সরকারের দুই মেয়াদে ৮৮টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র চালু হয়েছে'
বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু গ্রেপ্তার
৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট প্রস্তাব
‘রাজাকারের মূল্য কি জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত শিল্পীর চেয়ে বেশি?’
ধর্ষণ মামলায় মায়ের সমর্থন রোনালদোর
গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর হামলা: মানববন্ধনে দোষীদের শাস্তি দাবি
নওগাঁয় দোকানে আগুন, ৩ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ভস্মীভূত
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু
অবাক করা শুভেচ্ছা বার্তা মমতার জন্য
এই শহরে থাকলেই মিলবে দশ হাজার ডলার সঙ্গে বাড়ি
রাজধানীতে ‘অ্যাকটিভ সিটিজেনস রিজিওনাল অ্যাচিভারস সামিট’
তফসিলের পর মন্ত্রিসভার প্রথম বৈঠক অনুষ্ঠিত
ডামুড্যায় আ.লীগ নেতার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের হামলা
পর্নো ভিডিও দেখার শীর্ষে নারীরা