প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ    পেঙ্গুইন হলেও সেনাসদস্যদের স্যালুট ঠিকই পান স্যার নিলস ওলাভ থ্রি। পাবেন নাই বা কেন? পদবিতে যে তিনি ব্রিগেডিয়ার। নরওয়ের সেনাবাহিনীর বিশেষ ইউনিট ‘রয়্যাল নরওয়েজিয়ান গার্ড’ সম্প্রতি এই পেঙ্গুইনকে ব্রিগেডিয়ার হিসেবে পদোন্নতি দিয়েছে।

 

 

 

 

গেল সোমবার সামরিক কায়দায় আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে পদক পরিয়ে সম্মান জানানো হয়। এই উপলক্ষে এডিনবরায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে বাহিনীর ৫০ সদস্য অংশ নেন। এ সময় সেনাদের গার্ড অব অনার নিতে নিতে রাস্তার বাইরে চলে যান পেঙ্গুইনটি। অবশ্য সম্মানের সাথে তাকে ট্রাকে রাখার চেষ্টা করেন অধস্তনেরা।অবশ্য স্রেফ মজার জন্যে পেঙ্গুইনটির সঙ্গে এমন কাজ করেনি ‘রয়্যাল নরওয়েজিয়ান গার্ড’। পাখিটির স্বীকৃতির বিষয়টি ঐতিহ্যের অংশ। নরওয়ের রাজার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা রয়্যাল নরওয়েজিয়ান গার্ডের মাসকট হচ্ছে পেঙ্গুইন। তাই এই বাহিনীতে পেঙ্গুইনের যেমন কদর রয়েছে, রয়েছে সম্মানও।

 

 

 

 

স্কটল্যান্ডের এডিনবরা চিড়িয়াখানায় থাকা স্যার নিলস ওলাভ থ্রি ২০০৮ সাল থেকে রয়্যাল নরওয়েজিয়ান গার্ডের সদস্য। নরওয়ের ক্রিশ্চিয়ান সালভেসেন পরিবার ১৯১৩ সালে এডিনবরা চিড়িয়াখানায় কিং প্রজাতির পেঙ্গুইন উপহার দেয়। এরপর নরওয়েজিয়ান গার্ডের মেজর নিলস এজিলেন ১৯৭২ সাল থেকে বাহিনীর তত্ত্বাবধানে প্রতীক হিসেবে পেঙ্গুইন পালন শুরু করেন। মেজর নিলস এজিলেন আর নরওয়ের রাজা ওলাভের নামের অংশ থেকে সেসময় পেঙ্গুইনটির নাম রাখা হয় নিলস ওলাভ ওয়ান।

 

 

 

 

প্রথম নিলস ওলাভ করপোরাল থেকে সার্জেন্ট পর্যন্ত পদোন্নতি পায়। দ্বিতীয় নিলস ওলাভ সার্জেন্ট থেকে কর্নেল ইন চিফ পর্যন্ত পদোন্নতি পায়। পায় নাইট উপাধিও।সবশেষ নিলস ওলাভ থ্রি পেল ব্রিগেডিয়ার খেতাব। এ ব্যাপারে নরওয়েজিয়ান গার্ডের ব্রিগেডিয়ার ডেভিড অলফ্রেই জানান, এই ধরনের উদ্যোগ স্কটল্যান্ড ও নরওয়ের ঐতিহাসিক সম্পর্ককে আরও দৃঢ় করবে।