প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃভারতের কেরালায় একটি গ্রামেই ২২০ জোড়া যমজ সন্তান রয়েছে। কোদিনহি নামে ওই গ্রামটিতে পরিবার সংখ্যা ২ হাজারের মতো। ফলে গ্রামটি পরিচিতি পেয়েছে ‘যমজ গ্রাম’ নামে।বিশেষজ্ঞ ডাক্তাররা চেষ্টা করছেন গ্রামটিতে কেন বেশি যমজ শিশু জন্ম নিচ্ছে। কিন্তু তারা এখনও কোনো কারণ খুঁজে পায়ন্

 

 

 

 

 

স্থানীয় একজন চিকিৎসক ও যমজ শিশু বিশেষজ্ঞ ডা: কৃষ্ণ শ্রীবিজু বলেন, সাধারণত প্রতি এক হাজার শিশুর মধ্যে এক জোড়া যমজ শিশু পাওয়া যায়। কিন্তু কোদিনহিতে প্রতি এক হাজারে যমজ শিশুর সংখ্যা ৪৫ জোড়া।ওই চিকিৎসক যমজ শিশুর জন্মের ব্যাপারে কিছু কারণ ব্যাখ্যা করেছেন। সেগুলি হল- বেশি বয়সে মা হওয়া, মায়েদের সাধারণ উচ্চতা ৫ ফুট ৩ ইঞ্চির বেশি হওয়া ইত্যাদি।

 

 

 

 

 

কিন্তু কোদিনহিতে বেশির ভাগ নারীর বিয়ে হয় ১৮-২০ বছরের মধ্যে। তাদের গড় উচ্চতাও মাত্র ৫ ফুট। এর পরও কেন সেখানে এত বেশি যমজ শিশু জন্ম নিচ্ছে, সে ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট কারণ হাজির করতে পারেননি তিনি। এই বিষয়ে ডা. কৃষ্ণ বলেন, ‘আমার ধারণা, এখানকার আবহাওয়ায় এমন কিছু আছে, যে কারণে এমনটা ঘটছে। এ ছাড়া এখানকার লোকজন যেসব খাবার খায় এবং পানীয় পান করে, সেগুলোর কারণেও এমনটা ঘটতে পারে।’কোদিনহিতে টুইন অ্যান্ড কিন অ্যাসোসিয়েশন (টিএকেএ) নামে যমজদের একটি সংগঠন ও রয়েছে। এই সংগঠন থেকে সব যমজের পড়াশোনা ও চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়ে থাকে।