প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ  বিভিন্ন পর্নোগ্রাফী মুভিতে খুব ফর্সা চকচকে যৌনাঙ্গযুক্ত নর-নারীর ছবি দেখানো হয়। ওই যৌনাঙ্গ পরিষ্কার এর অধিকাংশই কিন্তু মেক-আপের ফসল। কাজেই ওইসব দেখে যৌনাঙ্গের রঙ ফর্সা করতে বেশি আগ্রহান্বিত হওয়া একেবারেই অনুচিৎ। যৌনাঙ্গ ও তার নিকটবর্তী অঞ্চল নিয়মিত পরিষ্কার করলে এমনিতেই দেখতে ভাল লাগবে । তবে ওখানের লোম খুব বেশি কামালে কিন্তু ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।সব থেকে ভাল হচ্ছে ট্রিমিং করা।

 

 

 

যৌনাঙ্গ পরিষ্কার করার জন্য সাবান ব্যবহার করা ঠিক নয়। শুধু জল দিয়ে, বা হালকা গরম জল দিয়ে যৌনাঙ্গ পরিষ্কার করাই সব থেকে ভাল উপায়। প্রয়োজন হলে জলে অল্প লবন মিশিয়ে নেওয়া যেতে পারে। যদি খুবই ইচ্ছে করে তবে মাইল্ড সাবান যার pH মান 7 এর কাছাকাছি, ব্যবহার করতে পার। লিঙ্গের অগ্রভাগ (লিঙ্গমুন্ড), মূত্রছিদ্র, যোনি পথ, যোনিদ্বার এবং পায়ু – এইসব অঞ্চলের মিউকাস পর্দা সাবান ব্যবহারের ফলে ড্রাই হয়ে যায়। দীর্ঘদিন এমন হতে থাকলে নানান সমস্যা যেমন চুলকানি, যন্ত্রনা, জীবাণু সংক্রমণ, মলদ্বারের ত্বক ফেটে গিয়ে রক্তক্ষরণ ইত্যাদি হতে পারে।

এই বিভাগের আরো খবর :

সাজাপ্রাপ্তরা নির্বাচন করতে পারবেন না: তোফায়েল
যে কারণে টেস্ট খেলা কমিয়ে দেবেন মোহাম্মদ আমির
১২ বছরেই বাবা হলো কিশোর!
নদীবন্দর সমূহকে ২ নম্বর নৌ হুশিয়ারি সংকেত
ধেয়ে আসছে কালবৈশাখী ঝড়
বিএনপি অবশেষে বিবৃতি দিল নুসরাতকে নিয়ে
ছোট্ট 'বসের' মধু ঝরানো কড়া শাসন! (ভিডিও)
বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট উৎপেক্ষপণের নতুন তারিখ ১০ মে
আজ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যাবেন ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট
পাঁচবিবিতে দোকান ও বাড়িতে অগ্নিকান্ড
অবৈধ সম্পর্কে রাজি না হওয়ায় তরুণীকে পেটালো বিএনপি নেতা
প্রশ্নঃ- আমার স্বামীর পুরুষাঙ্গ ৩ ইঞ্চি, আমাকে সুখ দিতে পারে না
দুই হাজার মাদ্রাসায় আধুনিক ভবন নির্মাণ করা হবে : শিক্ষামন্ত্রী
ইন্দোনেশিয়ায় শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত ১
ভালবাসার কমল হয়ে ফুটুক বেদনার নীল