প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ   বাংলা ভাষাকে সর্বস্তরে প্রতিষ্ঠার দাবিতে অমর একুশে ফেব্রুয়ারির শহীদদের স্মরণ করেছে গ্রিন ইউনিভার্সিটি পরিবার। আজ বৃহস্পতিবার (২১শে ফেব্রুয়ারি) মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষার দিবস-২০১৯ উপলক্ষে প্রভাতফেরি ও শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে এই কর্মসূচি শুরু হয়। পরে গ্রিন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকিরের সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভায় ভাষা সৈনিক ও কবি সাবির আহমেদ চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে স্মৃতিচারণ রাখেন।

 

 

 

 

 

 

বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ফৈয়াজ খান, কোষাধ্যক্ষ মো. শহীদ উল্লাহ, সহকারী অধ্যাপক মো. শামিম মন্ডল। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন অনুষদের ডিন, চেয়ারপারসন ও শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবির আহমেদ চৌধুরী বলেন, ভাষা শহীদ ও সৈনিকরা হলেন প্রথম সারির মুক্তিযোদ্ধা। তাদেরকে যথাযথ সম্মান দিতে হবে। তিনি বলেন, অনেক ত্যাগ আর রক্তের বিনিময়ে বাংলা ভাষা অর্জিত হয়েছে। তাই এর সর্বজনীন প্রয়োগ নিশ্চিত করতে হবে।

 

 

 

 

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির বলেন, ভাষা হলো মায়ের মত। তাই এটাকে বাদ দিয়ে কোন কিছু করা সম্ভব নয়। তিনি নতুন প্রজন্মকে ভাষা আন্দোলন, মুক্তিযুদ্ধসহ বিভিন্ন ইতিহাস জানতে উদ্বুদ্ধ করেন। উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ফৈয়াজ খান ভাষা আন্দোলনে স্মৃতিচারণ করেন।

 

 

 

 

 

পাশাপাশি তিনি আগামী প্রজন্মকে মাতৃভাষার ইতিহাস-ঐতিহ্য সম্পর্কে জানার তাগিদ দেন।এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের তৈরি করা দেয়াল পত্রিকা ও খোলা চিঠি প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। আলোচনা সভায় শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কালচারাল ক্লাবের পরিচালনায় মনোজ্ঞ এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।