প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:   পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশের একটি  ফাইভ-স্টার হোটেলে বেশ কয়েকজন বন্দুকধারী হামলা চালিয়েছে। বেলুচিস্তানের বন্দরনগরী গোয়াদারের পার্ল কন্টিনেন্টাল নামের ফাইভ-স্টার হোটেলে এই হামলা হয়েছে।স্থানীয় সময় শনিবার বিকাল ৪টা ৫০ মিনিটে এই হামলা হয়। হামলার সঙ্গে সঙ্গেই হোটেলটির বেশিরভাগ অতিথিকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। যাদের মধ্যে বিদেশি পর্যটক এবং ব্যবসায়ীর সংখ্যাই বেশি।

 

 

 

 

এখন পর্যন্ত ৪ জঙ্গি ও ১ নিরাপত্তাকর্মীর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে।বেলুচিস্তানের স্বাধীনতাকামী বিদ্রোহী সংগঠন বেলুচিস্তান লিবারেশন আর্মি হামলার দায় স্বীকার করেছে।বিদ্রোহী সংগঠনটি বলেছে, তারা চীনা এবং অন্যান্য বিদেশি বিনিয়োগকারীদের টার্গেট করে এই হামলা চালিয়েছে। গোয়াদারে চীন কোটি কোটি ডলার বিনিয়োগ করেছে। কিন্তু বিদ্রোহীদের মতে চীনের এই বিনিয়োগ থেকে স্থানীয় মানুষদের কোনো উপকার হবে না।

 

 

 

 

 

বন্দুকধারীদের হামলার পর নিরাপত্তাবাহিনী হোটেলটি ঘিরে ফেলেছে।নিরাপত্তা বাহিনীর সূত্রগুলো বলছে, কমপক্ষে তিনজন বন্দুকধারী হোটেলের একটি অংশ থেকে গুলি ছুড়ছে। সর্বশেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত হামলাকারীদের গুলিবর্ষণ চলছে।বালুচিস্তান পাকিস্তান পাকিস্তানের সবচেয়ে দরিদ্র এবং অনগ্রসর প্রদেশ। বহুদিন ধরে সেখানে সশস্ত্র বিচ্ছিন্নতবাদী আন্দোলন চলছে।প্রদেশটিতে তালেবান এবং লস্কর-ই-জাঙভির মতো জঙ্গি সংগঠনও সক্রিয় রয়েছে।

 

 

 

 

গওধার স্টেশন হাউস অফিসার আসলাম বানগুলজাইয়ের বরাতে ডনের খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।বিলাসবহুল হোটেলটির মধ্যে এখন কোনো বিদেশি নাগরিক নেই বলে আসলাম বানগুলজাই জানিয়েছেন।পরিস্থিতি ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ, সন্ত্রাসবিরোধী বাহিনী ও সেনাবাহিনী উপস্থিত রয়েছে।পুলিশের মহাপরিদর্শক মোহসিন হাসান বাট বলেন, দুই থেকে তিনজন সশস্ত্র লোক গুলি করতে করতে হোটেলের ভেতরে ঢুকে পড়েছে। তবে সেখানে কোনো বিদেশি নেই। হোটেল কর্মকর্তা-কর্মচারী রয়েছেন ভেতরে।

 

 

 

 

 

হামলাকারীরা একটি নৌকায় করে এসে হোটেলে ঢুকে পড়ে। দেশটির ফ্রন্টিয়ার কোর্পসের সদস্যরা হোটেলটি ঘিরে রেখেছে। সেখানে এখন কাউকে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।গওধারের কোহ-ই-বাটিল হিলে পাঁচতারকা হোটেল পার্ল কন্টিনেন্টাল নামের ফাইভ-স্টার হোটেল অবস্থিত। এর কয়েক সপ্তাহ আগে ওরমারায় সন্ত্রাসীরা নৌ, বিমান ও কোস্ট গার্ডের ১১ সদস্যসহ ১৪ জনকে হত্যা করেছে।