প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:   অর্গাজম সেক্সের শেষ পর্বে চূড়ান্ত ভাললাগার একটি মুহূর্ত। কিন্তু, যা অর্গাজম বলে মনে করা হচ্ছে, তা কি আদৌ সত্যি ? নাহ্, সমীক্ষা বলছে, অর্গাজম না হলেও তার নাটক করে বহু সংখ্যক নারী-পুরুষ। ‘সেক্সুয়াল অ্যান্ড রিলেশনশিপ থেরাপি’ ম্যাগাজিনে সম্প্রতি একটি সমীক্ষার রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে।

 

 

 

 

সেখান থেকেই জানা যাচ্ছে এমন তথ্য।সেক্সের চরম মুহূর্ত হল অর্গাজম। কিন্তু, ওই সমীক্ষার রিপোর্ট বলছে, সেক্সের সময় যে আনন্দের অনুভূতি জাগে, তার জেরে মুখ দিয়ে নানা রকম আওয়াজ বেরোয় নারী-পুরুষ নির্বিশেষে। একে শিৎকার বলে। শিৎকার আর অর্গাজম যেমন এক নয়, তেমনই মুখ দিয়ে ভাললাগা সূচক শব্দ বেরোনোর অর্থ অর্গাজম নয়।

 

 

 

 

 

বীর্য বেরিয়ে যাওয়া মানেই কিন্তু অর্গাজম নয়। অনেক পুরুষ শীঘ্রপতনে ভোগে। এরা কিন্তু বীর্যপাত করলেও অর্গাজমে পৌঁছতে পারে না। অথচ এদেরই একাংশ মুখ দিয়ে এমন শব্দ করে যেন মনে হয় অর্গাজম হয়ে গিয়েছে।মেয়েদের ক্ষেত্রেও এই ব্যাপারটি লক্ষণীয়। বিশেষত যাদের যোনিপথ শুকনো, তাদের কাছে সেক্স একটা বেদনাদায়ক ব্যাপার।

 

 

 

 

 

অথচ সঙ্গীর চাপাচাপিতে সেক্স করতে বাধ্য হয়। এমন মেয়েদের একাংশ তাই ব্যথা থেকে পরিত্রাণ পেতে তাড়াতাড়ি অর্গাজমে পৌঁছনোর ভান করে।