প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:  আল্লাহ প্রদত্ত ‘জীবন বিধান’ ইসলামের কালিমা খচিত পতাকা পৃথিবীর বুকে চির উড্ডীন করার জন্য আল্লাহ তায়ালা পৃথিবীতে প্রথমে মানবজাতিকে সৃষ্টি করেন এবং যুগে যুগে মহামানবও প্রেরণ করেন। এ মহামানবগণের মধ্যে সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ঠ হন আমাদের মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স)। তিনি ইসলামের অমর বাণী জন সাধারণের কাছে পৌঁছানোর নিমিত্তে অনেক কষ্ট ও সংগ্রামের সম্মুখীন হয়েছেন। তার জীবনে উল্লেখযোগ্য যুদ্ধগুলোর মধ্যে রমজান মাসের যুদ্ধগুলো অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। পবিত্র রমজান মাস, কুরআন নাজিলের মাসও বটে। সেই সাথে এই মাসটিকে কুরআন বিজয়ের মাসও বলা যায়।

 

 

 

 

 

কারণ ইসলামের প্রাথমিক যুগে এই মাসে অনেকগুলো যুদ্ধ সংগঠিত হয়। আর সেই সব যুদ্ধে মুসলিমরাই বিজয়ী হয়। আর এই বিজয়ের মাধ্যমে ইসলামের বিস্তৃতি ঘটে। দেশ থেকে দেশান্তরে ইসলামের সুমহান আদর্শ ছড়িয়ে পড়ে। পবিত্র রমজান মাসে যেসব যুদ্ধ সংগঠিত হয়েছে তার একটি তালিকা আপনাদের সামনে তুলে ধরবার চেষ্ঠা করছি। পবিত্র রমজান মাসে যতোগুলো যুদ্ধ সংগঠিত হয়েছে তার মধ্যে বদর যুদ্ধটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ! কারণ এই যুদ্ধের উপর ইসলামের ভাগ্য দাঁড়িয়েছিল! এই যুদ্ধে মুসলিমরা পরাজিত হলে আজ হয়তো বিশ্বের বুকে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের নাম নেবার মত দ্বিতীয় কোন মুসলিম অবশিষ্ট থাকতো না।

 

 

 

 

 

বদর ছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি যুদ্ধ রমজান মাসে সংঘঠিত হয়েছে। তার আলোকে নিম্মে ৯ম রমজানের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস তুলে ধরলাম। সপ্তম শতাব্দীর শেষের দিকে এবং অষ্টম হিজরীর প্রথম দিকে দুই সুযোগ্য সেনাপতি মুসা বিন নুসায়ের ও তারিক বিন যিয়াদ যৌথভাবে স্পেনের পরিপূর্ণ জয়লাভের জন্য আক্রমন চালান এবং ৭১২খ্রিস্টাব্দে স্পেন জয় করেন। মুসলমানদের কর্তৃক স্পেন বিজয় ইসলামের ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা।

 

 

 

 

 

স্পেন বিজয়ের ঘটনাঃ- সেনাপতি মুসা বিন নুসায়ের স্পেনের প্রাথমিক অবস্থা জানার জন্য অধীনস্ত সেনানায়েক তারিক বিন যিয়াদ কে ৭১০ সালে প্রেরণ করেন। তারিক স্পেনের দক্ষিণ উপকূলে অবতরণ করেন যার নাম বর্তমানে জাবালুত তারিক। পরে এটা জিব্রাল্টার নামে পরিচিত হয়। মুসা বিন নুসায়ের স্পেনের একাংশ সাফল্যজনক পর পুনরায় ৭১১খ্রিস্টাব্দে তারিক কে পাঠালেন সমগ্র স্পেন অধিকার করার জন্য। অতঃপর ১৯ জুলাই ৭১১খ্রিস্টাব্দ তিনি রডারিকের ১০০০০ সৈন্যের মোকাবেলা করেন। গোয়াডেল কুইভারের ওয়াদিলিক্কা নামক নদীর তীরে উভয় বাহিনীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাধে।

 

 

 

 

 

যুদ্ধে মুসলমানরা জয় লাভ করেন। তারিক বিন যিয়াদের বিজয়ের খবর পেয়ে মুসা বিন নুসায়ের ৭১২খ্রিস্টাব্দে স্পেনে এসে অতিদ্রুত উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের খ্রিস্টান অধ্যুষিত মদিনা, ফার্মোনা, সেভিল এবং মেরিদার দিকে অভিযান প্রেরণ করেন। মাত্র দু’বছরের মধ্যে এ দু’সেনাপতি সমগ্র স্পেনে মুসলিম আধিপত্য বিস্তার করতে সক্ষম হন। মুসলমানগণ ধর্মীয় ব্যাপারে স্বধীনতায় বিশ্বাসী। ফলে স্পেন বিজয়ের ফলে সেখানে ধর্মীয় স্বাধীনতা স্থাপিত হয়। জনগণ ধর্মীয় ব্যাপারে সম্পূর্ণ স্বাধীনতা পায়।

 

 

 

 

লেখক পরিচিতি ইউছুফ আরমান কলামিষ্ট, সাহিত্যিক ফাজিল, কামিল, বি.এ অনার্স এম.এ, এলএল.বি দক্ষিণ সাহিত্যিকাপল্লী বিজিবি স্কুল সংলগ্ন রোড় ৬নং ওয়ার্ড, পৌরসভা, কক্সবাজার