প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:বিশ্বজুড়ে বিস্তৃত রিলায়েন্স গ্রুপের মালিক মুকেশ আম্বানি হচ্ছেন শুধু ভারত নয়, বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সম্পদশালী মানুষদের মধ্যে একজন। তিনি বসবাস করেন অ্যান্টিলা নামের ২৭ তলা বিশিষ্ট একটি বাড়িতে। আর সেই বাড়ির ১০টি অবাক করা তথ্য জানলে আপনার দু’চোখ কপালে উঠবেই।

 

 

জেনে নিন মুকেশ আম্বানির বাড়ি সম্পর্কে কয়েকটি অবাক করা তথ্য:

১. পৃথিবীর অন্যতম বিলাসবহুল এলাকা দক্ষিণ মুম্বইয়ের অল্টামাউন্ট রোডে চার লাখ স্কয়ার ফিটের উপরে এই বাড়িটি নির্মাণ করা। ন্যূনতম ১ লাখ টাকা স্কয়ার ফিট দরে এখানে ঘরবাড়ি বিক্রি করা হয়।

 

২. বাড়িটি ২৭ তলা বিশিষ্ট। গড় দু’তলার সমান এই বাড়ির একেকটি ফ্লোর। সেই হিসেবে প্রায় ৬০টি ফ্লোর রয়েছে এই বাড়িতে।

 

৩. শুধুমাত্র গাড়ি রাখার জন্য এই বাড়ির ছ’টি তলা বরাদ্দ। এই গ্যারাজে মোট একশ ৬৮টি গাড়ি রাখা যেতে পারে। সপ্তম তলায় রয়েছে গাড়ির সার্ভিস সেন্টার।

 

৪. হেলিপ্যাড রয়েছে বাড়িটির ছাদে। তবে একটি নয়, তিনটি হেলিপ্যাড! এই বাড়িতে ৯টি এলিভেটর রয়েছে। প্রতিটিই ‘সুপার ফাস্ট’।

 

৫. এই বাড়ি ভূ‌মিকম্প রোধক। ৮ রিখটার স্কেলের ভূমিকম্প অনায়াসেই সহ্য করতে পারেব।

 

৬. বাড়ির দু’টি তলা-জুড়ে রয়েছে রিক্রিয়েশন সেন্টার, যা অনায়াসে পৃথিবীর যে কোনো পাঁচতারকা হোটেলকে লজ্জা দেবে। কী নেই সেখানে! জিম থেকে শুরু করে স্পা, জাকুজি, সুইমিং পুল, এবং ডান্স স্টুডিও।

 

৭. একটি বিশাল মন্দির, অতিথিদের জন্য এক্সক্লুসিভ সুইট, আইসক্রিম পার্লার এবং একটি সিনেমা হল, যেখানে একসঙ্গে ৫০জন বসে ছবি দেখতে পারেন। একটি ‘স্নো রুম’-ও রয়েছে মুম্বইয়ে মুকেশ অম্বানির বাড়িতে।

 

৮. প্রতিটি ফ্লোর দেখতে প্রতিটির থেকে আলাদা। কোনোটির সঙ্গে কোনোটির মিল নেই। এই বহুতলের একটি বাগানও রয়েছে। সেটি বাড়ির চতুর্থ তলায়।