প্রথমবার্তা,প্রতিবেদক: গত ১১ জুন জান্নাত ফেরদৌসীর সঙ্গে আকদ হয়েছে ঢাকা অ্যাটাক খ্যাত অভিনেতা তাসকিন রহমানের। মাত্র আট মাসের পরিচয় তাদের। তাসকিনের কথায়, প্রথমে বন্ধুত্ব হয়। ছয় মাস পর প্রেম। প্রেমের দুই মাসের মাথায় আকদ। পারিবারিকভাবে বিয়ের পর এখন তারা প্রস্তুতি নিচ্ছেন আনুষ্ঠানিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের।

এটি তাসকিনের দ্বিতীয় বিয়ে। প্রথম বিয়ে হয় নুসরাত জাহানের সঙ্গে। বিয়ের এক মাসের মধ্যেই বিচ্ছেদ হয় তাদের।

বেশ গোপনীয়তা নিয়েই তাদের আকদ সম্পন্ন হয়। দুই পরিবারের বাইরে কেউই জানতেন না তাসকিনের বিয়ের খবর। তাসকিনের আকদে আমন্ত্রিত ছিলেন না বিনোদন জগতের কোনো বন্ধু। দু–তিন দিন পর একটু একটু করে কানাঘুষা শুরু হয়। ছড়িয়ে পড়ে গোপনে বিয়ে করেছেন তাসকিন।

তাসকিন বলেন, ‘জান্নাতের দুই ভাই ইতালি থাকেন। তারা দেশে ফিরবেন। ফিরলেই দুই পরিবারের আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব মিলে বড় আয়োজন করে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করব।’

জান্নাত ইতালির নাগরিক। ছোটবেলা থেকেই সেখানে তার বেড়ে ওঠা। অন্যদিকে তাসকিন রহমান অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক। অভিনয়ের সুবাদে মাঝেমধ্যে বাংলাদেশে আসেন। তবে স্ত্রীকে নিয়ে ঢাকায় বা ইতালিতে নয় তাসকিন চান অস্ট্রেলিয়াতে স্থায়ী হতে।

তিনি বলেন, ‘যেহেতু আমি অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক, দীর্ঘদিন থেকে সেখানেই থাকি, তাই ভবিষ্যতে অস্ট্রেলিয়াতেই স্থায়ী হব। প্রতিবছর ইতালিতে ঘুরতে যাব।’

এদিকে আকদের পরই ১৫ জুন থেকে তাসকিন শুরু করেছেন শান ছবির শুটিং। মিশন এক্সট্রিম ছবির শুটিং প্রায় শেষের পথে। শোনা যাচ্ছে নেহাল দত্তের পরিচালনায় কলকাতার একটি সিনেমায়ও কাজের কথা চলছে তার।