প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:ধানমণ্ডির অভিজাত রেষ্টুরেন্টগুলোর মধ্যে পিজা পাসতা ডাইং বেশ জনপ্রিয়। অনেক ভোজন রসিক এই রেষ্টুরেন্টকে রিভিউতে ১০ এ ১০ দিয়ে থাকেন। কিন্তু আজ সোমবার (২২জুলাই) ম্যাজিস্ট্রেট অভিযানের পর জানা গেলো আসল খবর।

অভিযানের সময় দেখা গেছে- কিচেনে একটি টেবিলে সাদা ভাত ফেলে রাখা হয়েছে, পাশে ছিলো কাঁচা মাংস। সেই মাংসের রক্ত গিয়ে মিশছে সাদা ভাতে। সেই ভাতই পরিবেশন করা হচ্ছে গেস্টদেরকে।

 

টেবিলের উপরই স্যূপ ও চিকেন ভেজিটেবল রাখা ছিলো খোলা অবস্থায়। একটি টেবিলেই অস্বাস্থ্যকরভাবে সব ধরণের খাবার একসাথে রাখা।

 

আজ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছেন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের ম্যাজিস্ট্রেট তুষার আহমেদ। রেষ্টুরেন্ট মালিক রিয়াজুল ইসলামকে এক  বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন তিনি। প্রথমবার্তার সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, ‘আমাদের রুটিন ওয়ার্কের অংশ হিসেবে আজ ধানমণ্ডির এই রেষ্টুরেন্টিতে অভিযান পরিচালনা করি।

 

 

এদের কিচেন দেখে ঘটনাস্থলে একজন আনসার সদস্য বমি করে দেয়। অভিযান পরিচালনার সময় সেখানে সিটি কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থী খাওয়া দাওয়া করছিলেন। তাঁরা সব শুনে কিচেন দেখে খাবার ফেলে দিয়ে চলে যান।’