প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:  খিদে পেলে আপনি কী খাবেন? হয় পছন্দের খাবার কিংবা সামনে যা পাবেন তা!কিন্তু কাউকে কখনও কয়েন, সোনার বালা, আংটি, কানের দুল, গলার চেন বা অন্যান্য গয়না খেতে শুনেছেন?

 

 

 

 

সম্প্রতি পেটের ব্যথা নিয়ে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন রুনি খাতুন। পরে তার পেট এক্স-রে করে গিয়ে ভিড়মি খান চিকিৎসকরা। বুঝতে পারেন রুনির পেটে আছে ধাতব কোনো বস্তু।

 

 

 

 

 

তবে যেদিন অস্ত্রপচার করলেন, আত্মারাম খাঁচাছাড়ার মতো অবস্থা হয়ে গিয়েছিল চিকিৎসকদের। পেটের ভেতর পেলেন ১ কেটি ৬৮০ গ্রাম স্বর্ণলংকার ও ৬০টি কয়েন।ঘটনা ভারতের।

 

 

 

 

 

 

 

 

দেশটির সংবাদমাধ্যম ‘এই সময়’ তাদের একটি প্রতিবেদনে জানিয়েছে, রুনি খাতুনকে ভর্তির পর তার পরীক্ষা করে বীরভূমের রামপুরহাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের চিকিৎসকরা পেটের ভেতর ধাতবের উপস্থিতি পান। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন একজন রোগী।

 

 

 

 

 

৫ সদস্যের একটি দল দীর্ঘ ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিট ধরে অস্ত্রোপচার করেন। তারা ১ কেটি ৬৮০ গ্রাম স্বর্ণলংকার ও ৬০টি কয়েন বের করে আনেন রুনির পেট থেকে।

 

 

 

 

 

 

মাড়গ্রামের কানাইপুরের বাসিন্দা রুনি খাতুনের পরিবার জানিয়েছে, তাদের বাড়িতে মনোহরির দোকান আছে। খিদে পেলে সেখান থেকেই কয়েন ও স্বর্ণের বালা, আংটি, কানের দুল খেয়ে ফেলেন রুনি।এছাড়া বাড়ির লোকজনের বিভিন্ন সোনার গয়না, ঘড়িও খেতেন তিনি। সেগুলোই পাকস্থলীতে গিয়ে আটকেছিল।