প্রথমবার্তা প্রতিবেদক: গতকাল বৃহস্পতিবার পাবনার চাটমোহর পৌর শহরের দোলবেদীতলা এলাকা দিয়ে উপজেলার ছাইকোলা গ্রামের উদ্দেশ্যে গাড়িতে চড়ে যাচ্ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সরকার অসীম কুমার।

 

 

 

 

ঘড়ির কাঁটায় ঠিক বিকেল সাড়ে ৪টা। স্বর্ণকার পট্টি দিয়ে গাড়িটি অতিক্রম করার সময় ইউএনও’র চোখে পড়ে ছোট্ট একটি ঝোপ-ঝাড়ের মধ্যে কিছু ক্ষুদে শিশু-কিশোর খেলোয়াড়রা ক্রিকেট খেলছে।

 

 

 

 

হঠাৎ গাড়িটি দাঁড় করিয়ে সেই শিশু-কিশোদের সাথে ক্রিকেট খেলায় নেমে পড়েন ইউএনও সরকার অসীম কুমার। ফেরার সময় তাদের হাতে তুলে দিলেন ক্রীড়া সামগ্রী।

 

 

 

ইউএনও’র এমন শিশু সুলভ আচরণে সবাই হতবাক হয়ে যান। আস্তে আস্তে পাড়ার লোকজন জড়ো হতে থাকে সেখানে।

 

 

 

 

প্রথম দিকে ক্ষুদে খেলোয়াড়রা ইউএনওকে চিনতে পারেনি। পরে তিনি তার পরিচয় দেন এবং প্রায় আধা ঘণ্টা ধরে তিনি (ইউএনও) শিশু-কিশোরদের সাথে খেলাধুলা করেন।

 

 

 

 

পরে তাদের হাতে উপহার হিসেবে তুলে দেন ব্যাট, বল, ষ্ট্যাম্প, হ্যান্ড গ্লোভসসহ নানা ক্রীড়া সরঞ্জাম। এছাড়া শিশু-কিশোরদের খেলাধুলায় উৎসাহ দিতে অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে নানা পরামর্শ দেন তিনি।

 

 

 

ইউএনও সরকার অসীম কুমার বলেন, ছোট্ট ছোট্ট শিশু-কিশোরদের খেলা দেখে আমারছোট বেলার কথা মনে পড়ছিল। তাই তাদের উৎসাহ দিতে কিছুক্ষণ খেলেছি।

 

 

 

পড়াশোনার পাশাপাশি শিশুদের খেলাধুলায় উৎসাহ না দিলে বড় হয়ে তারা নানা অপরাধ কর্মকান্ডের সাথে জড়িয়ে যেতে পারে। তাই প্রতিটি অভিভাবকের উচিত তাদের সন্তানদের পড়াশোনার খেলাধুলার প্রতি উৎসাহ দেয়া।