প্রথমবার্তা প্রতিবেদক:   রোহিঙ্গা ইস্যুকে ঘোলা করার চেষ্টাকারীরা সরকারের নজরদারিতে আছেন বলে মঙ্গলবার জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। খবর ইউএনবি’র।

 

 

 

 

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যুব মহিলা লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি বলেন, ‘যথা সময়ে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

 

 

 

 

 

রোহিঙ্গারা কোনো দিন বাংলাদেশ থেকে যাবে না বলে যে কথা বলা হচ্ছে তা উড়িয়ে দেন তিনি।কাদের বলেন, বাংলাদেশে থাকা রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে সরকার কাজ করছে।

 

 

 

 

বর্তমানে কক্সবাজারের বিভিন্ন উদ্বাস্তু শিবিরে ১১ লাখের অধিক রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়ে আছেন। তাদের বেশির ভাগই মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীগুলোর বর্বর অভিযান থেকে জীবন বাঁচাতে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে।

 

 

 

 

নিজেদের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নেই বলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর যে অভিযোগ জানিয়েছেন তার জবাবে কাদের বলেন, ‘আমার তো মনে হয় না দক্ষিণ এশিয়ায় তাদের মতো (বিএনপি) আর অন্য কোনো বিরোধী দল এত ভালো নিরাপত্তা পায়।’

 

 

 

 

তাদের অভিযোগের বিচারের ভার দেশবাসীর হাতে ছেড়ে দিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, বিরোধী দলের নেতারা যেখানে খুশি অবাধে যাচ্ছেন ও বক্তব্য দিচ্ছেন।

 

 

 

 

 

যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তারের সভাপতিত্বে সভায় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামসুন্নাহার রত্না, কোহেলী কুদ্দুস মুক্তি প্রমুখ বক্তব্য দেন।