প্রথমবার্তা প্রতিবেদক: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ বাসটার্মিনালে আগুন লেগে ১১টি পরিবহন কাউন্টার, ১টি চায়ের দোকান, ১টি সেলুনসহ মোট ১৫টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে এ আগুনের সূত্রপাত ঘটে।

 

 

 

 

কালীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার শামসুর রহমান জানান, কালীগঞ্জ বাসটার্মিনালে আগুন লাগার খবর পেয়ে তারা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় ১ ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

 

 

 

 

আগুনে সোহেলী, কহিনুর, চাকলাদার, চিত্রা, উত্তরা, মধুমতিসহ ১১টি পরিবহন কাউন্টার, ১টি সেলুন, ১টি চায়ের দোকানসহ ১৫টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়।তিনি ধারণা করছেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে।

 

 

 

 

 

কালীগঞ্জ সোনালী পরিবহন কাউন্টারের পরিচালক রাজু আহম্মেদ জানান, আগুনে পুড়ে ১৫টি প্রতিষ্ঠানের মালিক নিঃস্ব হয়ে গেছে। তাদের মধ্যে চায়ের দোকানদারের ফ্রিজসহ প্রায় ৫ লাখ টাকার মালামাল পুড়ে গেছে।

 

 

 

 

 

কালীগঞ্জ থানার অফিসার-ইনচার্জ (ওসি) ইউনুচ আলী বলেন, মঙ্গলবার রাতে বাস টার্মিনালে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগে বেশ কয়েকটি পরিবহন কাউন্টার, চায়ের দোকান ও সেলুন পুড়ে গেছে। রাতেই ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।