প্রথমবার্তা প্রতিবেদক: অনুকরণ করা সঠিক পন্থা নয়। তবে, কাউকে আদর্শ মনে করে অনুসরণ করা যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ। বুধবার রানু মন্ডলের গাওয়া নতুন গানের উদববোদন অনুষ্ঠানে এসে এমনটাই জানালেন গায়ক-সঙ্গীত পরিচালক হিমেশ রেশমিয়া। রানু মন্ডলকে নিয়ে লতা মঙ্গেশকরের মন্তব্যের ব্যাখ্যা দিলেন তিনি।

 

 

 

 

বুধবার মুম্বাইতে “হ্যাপি হার্ডি অ্যান্ড হির” সিনেমার নতুন গানের লঞ্চ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রানু মন্ডল ও হিমেশ রেশমিয়া। আনুষ্ঠানিকভাবে লঞ্চ হয় সোশ্যাল মিডিয়ায় এর মধ্যেই জনপ্রিয় হওয়া গান “তেরি মেরি কহানি”। সেখানেই রানুকে নিয়ে লতা মঙ্গেশকরের মন্তব্যের বিষয়ে ব্যাখ্যা দেন হিমেশ। তিনি বলেন, “আমার মনে হয়, লতাজি কেন এই মন্তব্য করেছেন, সেটা সকলের বোঝা উচিত।” হিমেশ বলেন, “আমার মতে, কোনও গায়ককে অনুকরণ করলে শেষমেশ তার ফল ভাল হয় না।” তবে হিমেশের কথায়, “আমার মনে হয়, কারও থেকে অনুপ্রেরণা পাওয়াটাও বেশ গুরুত্বপূর্ণ।”

 

 

 

 

সঙ্গীতশিল্পী কুমার শানুর প্রসঙ্গ তুলে হিমেশ বলেন, “কুমার শানুও নিজেই বহুবার জানিয়েছেন যে তিনি কিশোর কুমারের গান থেকে অনুপ্রাণিত। একইভাবে আমরা সবাই কোনও না কোনওভাবে নানা ব্যক্তির থেকে অনুপ্রাণিত।”

 

 

 

 

এ প্রসঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতাও তুলে ধরেন হিমেশ। তিনি বলেন, “আমি যখন উঁচু স্বরে গান গাওয়া শুরু করেছিলাম, সকলে বলতেন আমি ‘নাকি সুরে’ গান করি। কিন্তু এখন যদি আন্তর্জাতিক গানগুলি শোনা যায়, দেখা যাবে এভাবে গান করা খুবই জনপ্রিয় হয়ে গিয়েছে।”

 

 

 

 

‘তেরি মেরি কাহানি’-র পর হিমেশের ‘আঁ আঁ আশিকি মে তেরি’ গানের রিমেকও গেয়েছেন রানাঘাটের রানু মণ্ডল। শোনা যাচ্ছে, সলমন খানের দাবাং ৩-তে গাইতে পারেন ভাইরাল গায়িকা। এর পাশাপাশি তাঁকে দেখা যেতে পারে বিগ বসেও।রানাঘাট স্টেশনে ভবঘুরে রানু মণ্ডলের গান ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। লতা মঙ্গেশকরের গান গেয়ে বিখ্যাত হয়ে উঠেছেন রানু।

 

 

 

 

সম্প্রতি, আইএএনএসকে সাক্ষাত্কারে লতা প্রতিক্রিয়া দেন, “আমার নাম ও কাজের জন্য কারও ভালো হলে, নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি।” একইসঙ্গে তিনি মনে করিয়ে দেন, ”নকল করে বেশিদিন সাফল্য ধরে রাখা যায় না। আমার বা কিশোর দা (কিশোর কুমার), রফি সাব (মহম্মদ রফি), মুকেশ ভাইয়া বা আশার (আশা ভোঁসলে) গান গেয়ে স্বল্প সময়ে নজর কাড়েন নতুন গায়ক-গায়িকারা। কিন্তু এটা দীর্ঘস্থায়ী হয় না।”