10 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক:   বাংলাদেশে দ্রুত, অন্তর্ভুক্তিমূলক ও টেকসই উন্নতির প্রসারে নিজেদের অংশীদারিত্ব আরও জোরদার করার লক্ষ্যে ২০২০-২২ মেয়াদে প্রায় ৫০০ কোটি ডলার দেবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)।

 

 

 

 

এডিবির এদেশীয় পরিচালক মনমোহন প্রকাশ সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সাক্ষাৎ করে ২০২০-২২ মেয়াদের জন্য সংস্থার নতুন কান্ট্রি অপারেশন বিজনেস প্ল্যান (সিওবিপি) হস্তান্তর করেন। এতে বিভিন্ন সুনির্দিষ্ট প্রকল্পে প্রায় ৫০০ কোটি ডলার জড়িত আছে।

 

 

 

 

সেই সাথে আরও ৪৯০ কোটি ডলারের প্রকল্প পাইপলাইনে ‘অপেক্ষমাণ’ রাখা আছে। প্রস্তুতির ওপর ভিত্তি করে এসব প্রকল্পে এডিবির অর্থায়ন হবে।মনমোহন প্রকাশ বাংলাদেশের জন্য এডিবির বর্ধিত উন্নয়ন কর্মসূচি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী হাসিনাকে অবহিত করেন বলে শুক্রবার সংস্থাটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

 

 

 

 

সরকারের সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা ও এডিবির কৌশল ২০৩০ ও টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বাস্তবায়নে সহায়তার সাথে সিওবিপি’র সমন্বয় রাখা হয়েছে। সেই সাথে এতে আগামী পাঁচ বছরের জন্য অগ্রাধিকারের বিষয়গুলো তুলে ধরে প্রণীত সরকারের নতুন ইশতেহারেরও সংযুক্তি বজায় রাখা হয়েছে।

 

 

 

 

প্রধানমন্ত্রী হাসিনা এডিবির সহায়তার প্রশংসা করেন এবং অবকাঠামো ও মানবসম্পদ উন্নয়ন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি গবেষণা, গ্রামীণ ও কৃষি উন্নয়ন ও বেসরকারি খাতের প্রসারের জন্য তার সরকারের অগ্রাধিকারগুলো তুলে ধরেন।

 

 

 

 

শক্তিশালী অর্থনৈতিক নৈপুণ্যের জন্য প্রধানমন্ত্রী হাসিনার প্রশংসা করে মনমোহন প্রকাশ বলেন, নতুন সিওবিপি সরকারের অগ্রাধিকারের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং এটি সমৃদ্ধির এক রাস্তা।বাংলাদেশে টেকসই উন্নতির প্রসারে এডিবির অংশীদারিত্ব আরও জোরদার করার ব্যাপারে সহায়তা অব্যাহত রাখার কথা পুনরায় ব্যক্ত করেন তিনি।

 

 

 

 

বাংলাদেশের সাথে ৪৬ বছরের দীর্ঘ অংশীদারিত্বে এডিবি ২৫০০ কোটি ডলারের বেশি ঋণ ও অনুদানের ব্যবস্থা করেছে। এককভাবে ২০১৮ সালে এডিবি অনুমোদন করেছে রেকর্ড ২৫০ কোটি ডলারের সহায়তা। যার মাঝে আছে কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া মানুষদের জন্য ২০ কোটি ডলার সাহায্যের প্রথম ধাপের ১০ কোটি ডলার অনুদান।