10 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক: গতকাল হারা ম্যাচ জিতে গেছে বাংলাদেশ। লোয়ার মিডল অর্ডারে আফিফ-মোসাদ্দেকে বাংলাদেশ জয় পায় ৩ উইকেটে। দলের নিয়মিত খেলোয়াড়রা নিয়মিত বাজে পারফর্ম করায় বড় ধরণের পরিবর্তনের আভাস দিয়েছেন বিসিবি নির্বাচকরা।

 

 

 

 

কপাল পুড়তে পারে একাধিক সিনিয়র খেলোয়াড়দের। ধারাবাহিকভাবে রান না পাওয়া ব্যাটসম্যানদের বাদ দিয়ে সুযোগ দেয়া হতে পারে পাইপলাইনের ক্রিকেটারদের। আগামীকাল আফগানদের বিপক্ষে ম্যাচের পরেই আসতে পারে এমন বিশাল পরিবর্তন।

 

 

 

 

সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান রুম্মন আর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের পারফরমেন্স পাখির চোখে পরখ করা হচ্ছে। একদম নিরাপদ নন লিটন দাসও। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ভাল খেলতে না পারলে এই চার জনের যে কোন দুজন বাদ পড়ে যেতে পারেন।

 

 

 

 

নির্বাচকদের ঘনিষ্ঠ সূত্রে মিলেছে তেমন আভাস। ওপরে যাদের কথা বলা হলো পরিসংখ্যানও তাদের বিপক্ষে। পরিসংখ্যান সাক্ষী দিচ্ছে, সৌম্য, মাহমুদউল্লাহ ও সাব্বিরের একজনও নিকট অতীতে সে অর্থে ভাল খেলেননি।

 

 

 

 

সিনিয়র পারফরমার মাহমুদউল্লাহর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সর্বশেষ শেষ ১৫ ম্যাচে (১, ২০, ১১, ৪৩*, ২১, ২৯, ১৪, ৪৫, ৩৫, ১৩, ৩২, ১২, ৪৩*, ১১, ১৪)= ৩৪৪। গড় ২২ দশমিক ৯৩।

 

 

 

 

অন্যদিকে সৌম্য সরকার শেষ ১৫ ম্যাচে সৌম্যর পারফরমেন্স খুব খারাপ। মাত্র ৬ বার ছুঁয়েছেন দুই অঙ্ক, ২ বার শুন্য এবং রান সাকুল্যে (০, ১৪, ২৪, ১, ১০, ১, ৩, ১৫, ০, ১৪, ৫, ৫, ৩২, ৯, ৪) = ১৩৬। গড় মাত্র ৯ রান!

 

 

 

সাব্বির রহমানের অবস্থাও প্রায় এক। শেষ ১৫ খেলায় (৪৮, ১৮, ১৬, ১৯, ১৯ , ৫, ১, ৩০, ০, ২৭, ১৩, ৭৭, ০, ১৩, ১৫ ) = ৩০১ রান করলেও দুবার শুন্য রানে আউট হবার পাশাপাশি আরও দুবার দুই অংকে পা রাখতে পারেননি। গড় ২০।

 

 

 

 

গতকাল (শুক্রবার) জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেও এ তিনজনের কেউ ভাল খেলেননি। মাহমুদউল্লাহ ৯, সৌম্য ৪ ও সাব্বির ১৫ রানে সাজঘরে ফিরেছেন।

 

 

 

দেড় বছর আগে ২০১৮ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি শেরে বাংলায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে দলে আনা হয়েছিল বড় ধরনের পরিবর্তন। চিরায়ত প্রথা ভেঙ্গে নির্বাচকরা হঠাৎই আফিফ হোসেন ধ্রুব, উইকেট কিপার জাকির হোসেন, নাজমুল অপু ও আরিফুল হককে দলে নিয়েছিলেন। জাকির আর আফিফ কিছু করতে পারেননি। তারপর জাকির আর ডাক পাননি। দেড় বছর পর আবার দলে জায়গা পেয়ে গতকাল বাংলাদেশকে হারা ম্যাচ জিতিয়েছেন আফিফ হোসেন।