15 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক: গরমকালে ঘুরতে ফিরতে আখের রস খান অনেকেই। কেউ গুণাগুণ জেনেই খান, কেউ আবার না জেনেই খান। অনেকেই আছেন রাস্তায় মেশিনে পিষে বের হওয়া আখের রস খান না। তাঁরা নিজেরা ছুলেই খেতে পছন্দ করেন। কিন্তু জানেন কি আখের রস খাওয়ার উপযোগিতা কী? আখের রসে বিপাকীয় গতি বাড়ে। বাড়ে কর্মশক্তি। ওজন কমানোর ক্ষেত্রে এই দু’টিই জরুরি। বিভিন্ন ধরনের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধ করে আখের রস।

 

 

 

 

১. আখের রসে যে কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, আয়রন, পটাশিয়াম-সহ অন্যান্য উপাদান থাকে, তা কর্মশক্তি বাড়িয়ে দেয়।২. জন্ডিস হলে আখের রস খেতে বলেন চিকিৎসকরা। এই পানীয় আপনার যকৃতকে সহজে হজম করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি শরীরে প্রোটিনের চাহিদা পূরণ করে লিভার ভালো রাখে।

 

 

 

৩. কোষ্ঠকাঠিন্য প্রতিরোধ করে আখের রস। মলের ওজন বাড়ায় আঁশ। পক্ষান্তরে তার অপসারণকে সহজ করে।৪. জন্ডিস ও অন্যান্য যকৃতের রোগ প্রতিরোধ আখের রসের বিকল্প নেই।

 

 

 

৫. আখের রসে থাকা ‘গ্লাইকোলিক অ্যাসিড’-এর মতো ‘আলফা-হাইড্রক্সি অ্যাসিডস (এএইচএ) ত্বকের জন্য উপকারী। ব্রণ প্রতিরোধে করে।৬. আখের রসে থাকা ক্যালসিয়াম, ফসফরাস ও অন্যান খনিজ উপাদান দাঁতের ‘এনামেল’ শক্তিশালী ও ক্ষয়রোধ করে।

 

 

 

 

৭. ক্যান্সার প্রতিরোধেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আখের রস। বিশেষ করে প্রস্টেট ও স্তন ক্যান্সারের ক্ষেত্রে। আখে থাকা ‘ফ্লাভানয়েড’ ক্যান্সার সৃষ্টিকারী কোষকে ছড়াতে বাধা দেয়।