10 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক:   কুখ্যাত এক সিরিয়াল কিলারের রহস্য উদঘাটনে মাঠে নেমেছে দক্ষিণ কোরিয়ার পুলিশ। প্রায় তিন দশক আগে ধর্ষণ এবং হত্যাকাণ্ডে অংশ নেওয়া এই অপরাধীর নানা বিষয় নিয়ে তদন্ত করতে গিয়ে এরই মধ্যে সামনে আসতে শুরু করেছে বহু ঘটনা। পুলিশের ধারণা, এবার এর কুলকিনারা করতে পারবে তারা

 

 

 

 

ওইসব হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সিরিয়াল কিলার ৫৬ বছর বয়সী লি চুন জে জড়িত রয়েছেন বলেই ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। নিহত অন্তত তিনজনের ডিএনএ পরীক্ষার পর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

 

 

 

 

বিবিসি বলছে, ১৯৮৬ সাল থেকে ১৯৯১ সাল পর্যন্ত দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলের পাশ্ববর্তী এক গ্রামে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন ১০জন নারী। এসব হত্যাকাণ্ডের তদন্ত করতে এখন পর্যন্ত অংশ নিয়েছেন প্রায় ১৮ লাখ তদন্তকারী কর্মকর্তা।

 

 

 

 

১৯৯৪ সালে শ্যালিকাকে ধর্ষণ এবং হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত এই ব্যক্তি এখন কারাগারে আছেন। হত্যকাণ্ডের দায় অস্বীকার করেছেন তিনি।

 

 

 

 

এই সিরিয়াল কিলার পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র ‘মেমোরিস অব মার্ডার’ দেখে তরুণী থেকে ৭০ বছরের বৃদ্ধাকে খুনে উৎসাহ পেতেন বলে জানা গেছে।
কোরিয়ার সংবাদমাধ্যমগুলোতে বলা হয়, শ্বাসরোধে খুন করা হয় ওই নারীদের। সিরিয়াল কিলার এমন কৌশল অবলম্বন করতেন সব খুনেই।ওই ১০ খুনের রহস্য উন্মোচনে প্রায় ২১ হাজার মানুষকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ; আঙুলের ছাপ নেওয়া হযেছে ২০ হাজার মানুষের।

 

 

 

 

পুলিশ কর্মকর্তা বান জি সো বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, দীর্ঘসময় ঘরে এসব খুনের ঘটনার কোনও সমাধান না হওয়ায় আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি। রহস্য উদঘাটনে আমরা সর্বো্চ্চ চেষ্টা করব।