6 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক:  টলিউড অভিনেত্রীকে হেনস্থার ঘটনায় ১ চিকিৎসককে গ্রেফতার করলো ভারতীয় পুলিশ। ঘটনার সাথে যুক্ত আরও ১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, ধৃত চিকিৎসক ও তার সহযোগী মিলে অভিনেত্রীর ছবি ও ফোন নাম্বার দিয়ে বিভিন্ন এলাকায় পোস্টারিং করেছিলেন।

 

 

 

 

পরিচয় দেওয়া হয়েছিল কলগার্ল হিসেবে। তারপর থেকেই অভিনেত্রীর মোবাইলে শারীরিক সম্পর্ক করতে চেয়ে প্রচুর ফোন আসে। অপমানিত হয়ে ২৮ শে আগষ্ট স্থানীয় সোনারপুর থানার দারস্থ হন অভিনেত্রী বৃষ্টি রায়।

 

 

 

 

 

লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন থানায়। ঘটনার তদন্তে নেমে অভিনেত্রীর কাছে আসা ফোনের সূত্র ধরেই চিকিৎসকের হদিস পায় পুলিশ।ধৃত চিকিৎসক অরুনাভ পাল ভারতের বারুইপুর থানা এলাকার পুরাতন বাজারের বাসিন্দা।

 

 

 

 

 

জানা গেছে, অভিযোগকারিনীর সাথে ওই ডাক্তারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তা ভাঙার পরেই অভিযুক্ত রাগে এই নোংরা পরিকল্পনা করেন। এর আগে ইস্পাত হাসপাতালে কর্মরত ছিলেন তিনি।

 

 

 

 

 

সেখানে নার্সদের সাথে খারাপ ব্যবহার করার অভিযোগে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। বর্তমানে বাড়িতেই চেম্বার করতেন অভিযুক্ত।

 

 

 

 

 

তিনিই অভিনেত্রীর মোবাইল নাম্বার ও ছবি শঙ্কর মাথ হালদারের দোকানে প্রিন্ট করিয়ে বিভিন্ন জায়গায় পোস্টারিং করেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় স্থানীয় থানায় এই দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়। জেরায় তাঁরা নিজেদের দোষ স্বীকার করেন। আর তারপরেই অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়।