প্রথমবার্তা, রিপোর্ট:    ক্যাসিনো বা জুয়ার উপকরণ আমদানির এলসি খোলা থেকে বিরত থাকার জন্য বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। একই সঙ্গে খেলাধুলার উপকরণ আমদানির এলসি খোলার ক্ষেত্রেও সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। খেলাধুলার সামগ্রীর এলসি খোলার সময় যাতে কোনো ক্রমেই ক্যাসিনোর উপকরণ ঢুকে না যায়, সেদিকে নজর রাখতে হবে।

 

 

 

 

কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলাকে সম্প্রতি এসব নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে কোনো নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এ নির্দেশনা পরিপালন করতে হবে।

 

 

 

 

 

সূত্র জানায়, ক্যাসিনো বা এর সমজাতীয় পণ্য আমদানির বিষয়টি আমদানি নীতিতে নিষিদ্ধ বা নিয়ন্ত্রিত পণ্যের তালিকায় বর্তমানে নেই। যে কারণে কয়েকটি ব্যাংক এসব পণ্যের এলসি খুলেছে।

 

 

 

 

 

ব্যাংকগুলো যাতে এসব পণ্যের এলসি খুলতে না পারে, সেজন্য আমদানি নীতিতে ক্যাসিনোর উপকরণ নিষিদ্ধ বা নিয়ন্ত্রিত পণ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার সুপারিশ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

 

 

 

 

 

সূত্র জানায়, দেশে ট্যুরিজম শিল্পের বিকাশ ও বিদেশিদের বাংলাদেশে ট্যুরিজমের প্রতি আকর্ষণ করতে কিছু বাড়তি সুবিধা দিতে হয়। এক্ষেত্রে বিশেষ আদেশ দিয়ে সে সুবিধা দেয়া যেতে পারে।

 

 

 

 

 

 

এদিকে ক্যাসিনো বা এর সমজাতীয় কোনো উপকরণ বন্দরে এসে থাকলে সেগুলো ছাড় না করার জন্য কাস্টমস কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। এ বিষয়ে সম্প্রতি এনবিআর থেকে দেশের সব কাস্টম হাউসে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।