6 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা, রিপোর্ট:    সপ্তম জাতীয় কংগ্রেস সামনে রেখে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন যুবলীগ নেতারা। তবে বৈঠকে উপস্থিত নেই ক্যাসিনোকাণ্ডে আলোচিত যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী।এছাড়া আজকের বৈঠকে সংগঠনটির প্রভাবশালী প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরন্নবী চৌধুরী শাওনকেও দেখা যায়নি।রোববার বিকাল ৫ টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এ বৈঠকটি শুরু হয়েছে।

 

 

 

 

 

কংগ্রেস সামনে রেখে গণভবনে অনুষ্ঠিত এই বৈঠককে অত্যন্ত গুরুত্ব দিচ্ছেন যুবলীগ নেতারা। আজকের বৈঠকে যুবলীগের কংগ্রেস নিয়ে জরুরি নির্দেশনা দেবেন শেখ হাসিনা।কংগ্রেকে কে সভাপতিত্ব করবেন, যুবলীগে নেতৃত্ব নির্ধারণে বয়সকাঠামো থাকবে কিনা এবং আগামী দিনে নেতৃত্বে কারা আসবেন সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা দেবেন আওয়ামী লীগ প্রধান।

 

 

 

 

 

ক্যাসিনোকাণ্ডে সুবিধাভোগী হিসেবে নাম আসায় গণভবনে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা থাকায় সংগঠনের প্রধান হয়েও আজ গণভবনে যেতে পারেননি ওমর ফারুক চৌধুরী।যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদের নেতৃত্বে যুবলীগের জ্যেষ্ঠ নেতারা গণভবনে গেছেন।যুবলীগের এক কেন্দ্রীয় নেতা জানান, যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির ২৬ প্রেসিডিয়াম সদস্য, ৯ সাংগঠনিক সম্পাদক ও ৫ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকসহ ৪০ জনের তালিকা গণভবনে পাঠানো হয়েছে।

 

 

 

 

 

এই তালিকা থেকে নেই সংগঠনটির চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী ও প্রভাবশালী প্রেসিডিয়াম সদস্য নুরন্নবী চৌধুরী শাওনের নাম। এর বাইরে কারও বিষয়ে আপত্তি আসলে ওই নেতা গণভবনে ঢুকতে পারবেন না।

 

 

 

 

 

আজকের বৈঠকে কংগ্রেস বাস্তবায়ন কমিটি করা হতে পারে। যুবলীগের এক জানান, চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরীকে অব্যাহতি দিয়ে প্রেসিডিয়ামের কাউকে ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব দেয়া হতে পারে কংগ্রেস সম্পন্ন করার জন্য। বয়সসীমা নির্ধারণের একটা দাবি আছে। এইগুলোই মূলত আলোচনা হবে।ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের কাউন্সিলের তারিখও আজ নির্ধারণ হতে পারে।প্রসঙ্গত, ক্যাসিনোঝড়ের পর অনেকটা টালমাটাল অবস্থা যুবলীগে। এরপর থেকে অনেকটাই আড়ালে চলে গেছেন যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী।

 

 

 

 

 

যুবলীগের জাতীয় কংগ্রেস আসন্ন হলেও যাচ্ছেন না সাংগঠনিক ও ব্যক্তিগত কার্যালয়ে। এর মধ্যে তাকে ছাড়াই প্রেসিডিয়ামের মিটিং হয়েছে। সেই মিটিং থেকেই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করা ও তার নির্দেশনা নেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। সেই বৈঠকেই প্রধানমন্ত্রীর কাছে কোন কোন বিষয় তুলে ধরা হবে সে বিষয়ে আলোচনা করে খসড়া তৈরি করা হয়।

 

 

 

 

 

এরপর বুধবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একান্তে কথা বলেন হারুনুর রশীদ। এ সময় প্রধানমন্ত্রী প্রথমে শুক্রবার দেখা করার সময় দিয়েছিলেন। কিন্তু ওইদিন শেখ রাসেলের জন্মদিন হওয়ায় যুবলীগ নেতাদের সাক্ষাতের দিন পরিবর্তন করে আজ বিকাল ৫টা করা হয়।