6 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা, রিপোর্ট:    আনুষ্ঠানিক ঘোষণা না হলেও যুবলীগের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপসকে অভিনন্দন জানাচ্ছেন তার কর্মী-সমর্থকরা। তবে গুঞ্জন আছে তাকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করা হতে পারে।রবিবার বিকালে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সংগঠনের সপ্তম কংগ্রেস উপলক্ষে গণভবনে সাক্ষাৎ করেন যুবলীগের শীর্ষ নেতারা। সমালোচনার মুখে থাকা যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীসহ চারজন প্রভাবশালী ছিলেন না বৈঠকে। তাদের গণভবনে প্রবেশে অঘোষিত নিষেধাজ্ঞা আছে।

 

 

 

 

বিকাল পাঁচটায় বৈঠক শুরু হলেও শুরুতে ভোলার বোরহানুদ্দিন উপজেলায় ফেসবুক পোস্ট দেয়াকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও স্থানীয়দের মধ্যে সংঘর্ষের বিষয়ে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়াও যুবলীগের বিষয়েও কথা বলেন। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

 

 

 

 

 

যদিও এরইমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যারিস্টার তাপসকে অভিনন্দন জানানো শুরু করেন সরকার দলীয় কর্মী-সমর্থকরা। অভিনন্দন জানানো ব্যক্তিরা ঢাকা-১০ আসনের সাংসদ ফজলে নূর তাপসের ছবি দিয়ে তাকে যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দাবি করে অভিনন্দন জানাচ্ছেন। কেউ আবার তার সঙ্গে তোলা ছবিও জুড়ে দিচ্ছেন অভিনন্দন পোস্টের সঙ্গে।

 

 

 

 

 

 

সাংবাদিক কাফী কামাল পোস্টে লেখেন, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় ফজলে নূর তাপসকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

 

 

 

 

 

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষক শামসুল কবির তাপসের ছবি পোস্ট করে লেখেন, যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির সুযোগ্য সন্তান শেখ ফজলে নূর তাপস (এমপি) যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।

 

 

 

 

 

 

এদিকে ফেসবুকের অভিনন্দন বার্তায় তাপস যখন ভাসছেন তখন তার ব্যক্তিগত সহকারী তারেক শিকদার জানিয়েছেন, কিছুক্ষণ আগে ফজলে নূর তাপস গণভবনের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন।