6 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা, রিপোর্ট:  শনিবার রাতে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস-এর প্রধান আবু বকর আল বাগদাদির ডেরায় অভিযানে চালায় মার্কিন সেনাবাহিনী। সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে সেই অভিযানে বাগদাদি নিহত হয়েছেন বলে দাবি করছে মার্কিন কর্তৃপক্ষ।  পেন্টাগন বলছে, ওই অভিযানে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়ে মারা গেছেন আইএসের শীর্ষ নেতা। এদিকে, বুধবার  সেই অভিযানের প্রথম ভিডিও প্রকাশ করেছে মার্কিন সেনাবাহিনী।

 

 

 

 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দাবি, ওই অভিযানের মধ্যে একটি টানেলের ভেতরে সুইসাইড ভেস্টে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে বাগদাদি নিজেকে উড়িয়ে দিয়েছেন।

 

 

 

 

ওই ভিডিওতে দেখা যায়, মার্কিন ‘স্পেশাল ফোর্সের’ সদস্যরা হেলিকপ্টার নিয়ে বাগদাদির আস্তানার দিকে এগিয়ে যাওয়ার সময় নিচে আইএস সদস্যদের দিকে গুলি ছুড়ছে।

 

 

 

 

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি বলছে, গত শনিবার ওই অভিযানের পর মার্কিন ‘স্পেশাল ফোর্সের’ ওই অভিযান শেষে বাগদাদির ওই আস্তানা বোমায় উড়িয়ে দেওয়া হয়।

 

 

 

 

 

এদিকে, মার্কিন বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান জেনারেল কেনেথ ম্যাকেঞ্জি জানান, বাগদাদির তিন সন্তান তার সঙ্গেই নিহত হয়েছে বলে আগে জানানো হলেও আসলে মারা গেছে তার দুই শিশু।

 

 

 

 

 

স্পেশাল ফোর্সের কুকুরের তাড়ায় বাগদাদি সুড়ঙ্গের ভেতরে পালানোর পথ না পেয়ে চিৎকার করে কাঁদতে কাঁদতে আত্মঘাতী হন বলে যে চিত্রিত বর্ণনা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প দিয়েছেন, তার সত্যতাও নিশ্চিত করতে পারেননি  জেনারেল ম্যাকেঞ্জি।