6 / 100 SEO Score

প্রথমবার্তা, রিপোর্ট: বায়ু দূষণের মাত্রা দিন দিন বাড়ছেই। পরিবেশকর্মী ও বিজ্ঞানীরা এই বায়ু দূষণ নিয়ে বারবার সতর্ক করছেন। বিশ্বে  দূষিত দেশের মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে  ভারত। শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের এনার্জি পলিসি ইন্সটিটিউটের এক গবেষণায় উঠে এসেছে এমনই তথ্য।

 

 

 

 

ভারতের থেকে ঠিক একধাপ উপরে বায়ু দূষণের দিক থেকে সবেচেয়ে খারাপ অবস্থায় রয়েছে নেপাল। এদিকে, ভবিষ্যতে ভারতীয় গাঙ্গেয় উপত্যকার সাত রাজ্যের মানুষের গড় আয়ু কমে যাবে ৭ বছর। শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সমীক্ষায় এমনটাই ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে।

 

 

 

 

গবেষণায় দেখা গেছে, দূষণ রোধের ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে ভারত। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)-র দূষণ এর মাপকাঠির বিচারে অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছে ভারত। ফলে, দেশের প্রায় ৪৮ কোটি মানুষের জীবনে এর উপরে মারাত্মক প্রভাব পড়বে। ভারতের জনসংখ্যার প্রায় ৪০ ভাগ মানুষের গড় আয়ু কমে যাবে সাত বছর।

 

 

 

 

 

এদিকে, ২০১১-র আদমশুমারির ওপর ভিত্তি করে ২০১৩-১৭ সালে একটি সমীক্ষায় দেখা গেছে, ভারতের জনসংখ্যার গড় আয়ু ৬৭ থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৯ বছরে। কিন্তু, ভবিষ্যতে গাঙ্গেয় উপত্যকার সাত রাজ্যের মানুষের গড় আয়ু কমে যাবে সাত বছর। এমনই ইঙ্গিত দিয়েছে শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই সমীক্ষা।

 

 

 

 

সমীক্ষা বলছে, পাঞ্জাব, চণ্ডীগড়, হরিয়ানা, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, বিহার এবং পশ্চিমবঙ্গের মানুষের গড় আয়ু কমে যেতে পারে সাত বছর। গড় আয়ু সাত বছর কমে যাওয়ায় বাংলা-সহ ওই রাজ্যের মানুষের গড় আয়ু গিয়ে ঠেকবে ৬২-তে। যেখানে ভারতে চাকরি থেকে অবসরের বয়সই ৬২ থেকে ৬৫ বছর, সেখানে এই সাত রাজ্যের গড় আয়ু ৬২তে নেমে আসায় প্রমাদ গুনছেন অনেকেই।

 

 

 

 

 

এদিকে, দূষণ প্রতিরোধে দিল্লি এবং তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে ‘হেলথ ইমারজেন্সি’ ঘোষণা করেছে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল টুইট করে আগামী ৫ই নভেম্বর পর্যন্ত দিল্লির সমস্ত স্কুল বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা দিয়েছেন।