প্রথমবার্তা, রিপোর্ট:  খুব শিগগিরই বাবরি মসজিদ মামলার রায় হতে পারে। আর এ মামলার রায় নিয়ে কোনও বিতর্কিত মন্তব্য না করতে মন্ত্রিসভার সদস্যদের অনুরোধ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বুধবার তিনি এ ব্যাপারে মন্ত্রিসভার সদস্যদের অনুরোধ করেন বলে জানা গেছে।

 

 

 

 

বাবরি মসজিদ মামলার রায় নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়দানের আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির এই অনুরোধ যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। পাশাপাশি নরেন্দ্র মোদি বিষয়টি নিয়ে শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানিয়েছেন।

 

 

 

 

 

জানা গেছে, বুধবার মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিয়ে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তিনি বলেন, প্রত্যেকেরই দায়িত্ব আছে বিষয়টি নিয়ে শান্তি বজায় রাখার। এব্যাপারে অযাচিত মন্তব্য থেকে দূরে থাকতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।

 

 

 

 

নভেম্বরের ১৭ তারিখের আগেই অযোধ্যা নিয়ে রায় দেবে সুপ্রিম কোর্ট। কেননা ওইদিন অবসর নিতে চলেছেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ।২৭ অক্টোবর, এখনও পর্যন্ত মোদির শেষ ‘মন কি বাতে’ প্রধানমন্ত্রী ২০১০-এর এলাহবাদ হাইকোর্টের রায়ের কথা উল্লেখ করেছিলেন।

 

 

 

 

 

এর আগে শাসক বিজেপির তরফ থেকে তাদের কর্মীদের এক মুখপত্রদের কাছে অনুরোধ করা হয়েছিল, যাতে তাঁরা রামমন্দির নিয়ে সংবেদনশীল এবং উস্কানিমূলক বক্তব্য না রাখেন। পাশাপাশি দলের সাংসদদের বলা হয়েছিল, তাঁরা যেন নিজের নিজের সংসদীয় এলাকায় থেকে শান্তি বজায় রাখার আবেদন করেন।

 

 

 

 

 

 

আরএসএস-এর পক্ষ থেকেও এ ধরনের সতর্কতামূলক অনুরোধ করা হয়েছিল দিন কয়েক আগে। রায় যদি তাদের পক্ষেও যায়, তাহলেও, যেন কোনও মিছিল বের করা না হয়, কর্মীদের বলা হয়েছিল আরএসএস-এর পক্ষ থেকে।

এই বিভাগের আরো খবর :

বাড়ছে স্রোত, ভাঙন থামছে না নড়িয়ায়
সিরিয়ার মানুষের কতোটা ভালো চান ট্রাম্প?
সিরিয়ায় হত্যাযজ্ঞ বন্ধের আহবান পোপের
বিএনপির কেউ জড়িত নয় ২১ আগস্টের হামলায় : মির্জা ফখরুল
বিপিএলে আসছেন ড্যানি, গাভাস্কার, মাঞ্জেকার!
আইএস'র প্রচার যন্ত্র কি হঠাৎ নিশ্চুপ হয়ে গেছে?
জালিয়াতির অর্থ ফেরত দেবেন না মোদি
খালেদা জিয়াকে খেতে দেওয়া হোক এরশাদের হাতের সেই গাছের বরই
জ্বালাও-পোড়াও আর হচ্ছে না : বাণিজ্যমন্ত্রী
সড়কে রাজীব-মীমের মৃত্যু, বিচারের রায় আজ
চীনা ঋণের ফাঁদে যেন না পড়ে বাংলাদেশ......
পেছনের ষড়যন্ত্রকারীদের ব্যাপারে সর্তক থাকতে হবে: তোফায়েল আহমেদ
বেড়েছে মূল্যস্ফিতি, নায়ক পেঁজায়
'রায় চাপিয়ে দিলে জনগণ তা গ্রহণ করবে না'