প্রথমবার্তা, রিপোর্ট:  আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একেবারেই নতুন মুস্তাফিজুর রহমান প্রায় সাড়ে চার বছর আগে অনির্বচনীয় অনুভূতির এক ‘প্রথম’ উপহার দিয়েছিলেন বাংলাদেশকে। এবার দীর্ঘ অভিজ্ঞতায় ঋদ্ধ মুশফিকুর রহিমের সামনেও দাঁড়িয়ে তেমনই আরেকটি অভূতপূর্ব সাফল্যের পেয়ালায় পুরো জাতিকে নিয়ে চুমুক দেওয়ার সুযোগ।যেটি নিশ্চয়ই হেলায় হারাতে চাইবেন না দিল্লি জয়ের নায়ক।

 

 

 

 

৪৩ বলে অপরাজিত ৬০ রানের ইনিংসে ভারতের বিপক্ষে  টি-টোয়েন্টিতে এনে দিয়েছেন প্রথম জয়। এবার প্রথমবারের মতো সিরিজ জয়েরও হাতছানি। টানা দুই ম্যাচে পারফরম করে অজেয় সেই আকাঙ্ক্ষা কি পূরণ করতে পারবেন বাংলাদেশ দলের উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান? ওয়ানডেতে যেটি পূরণ হয়েছিল মুস্তাফিজের হাত ধরে। ২০১৫-র জুনে ঢাকায় ওয়ানডে অভিষেকেই ৫ উইকেট নিয়ে ভারতের ব্যাটিং অর্ডার তছনছ করে হইচই ফেলে দেওয়া ‘কাটার মাস্টার’ ঝলসে উঠেছিলেন পরের ম্যাচেও। তাঁর ৪৩ রানে ৬ উইকেট নেওয়া পারফরম্যান্সে এক ম্যাচ হাতে রেখেই ভারতের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডে সিরিজ জিতেছিল বাংলাদেশ।

 

 

 

 

সময়ে ‘দ্য ফিজ’ রহস্য অনেকটাই উন্মোচিত হয়ে গেলেও নিয়মিত বিরতিতেই নিজের কার্যকারিতার জানান দিয়ে আসছেন মুশফিক। বাংলাদেশ দলের নেতৃত্বে যাঁর অভিষেকই হয়েছিল টি-টোয়েন্টিতে ম্যাচ জেতানো ইনিংস দিয়ে। ২০১১-র অক্টোবরে ঢাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২৬ বলে অপরাজিত ৪১ রানের ইনিংস খেলার পথে তাঁর জয় নিশ্চিত করা শটটি ছিল ছক্কা। পরে একসময় অধিনায়কত্ব গেলেও পারফরমার মুশফিক আছেন আগের মতোই। টি-টোয়েন্টির পরিসংখ্যানও বলছে সে কথাই। তাঁর ৮২ ম্যাচের ক্যারিয়ারে বাংলাদেশ জিতেছে ৩০টিতে। ক্যারিয়ার গড় যেখানে ২০.৬৭, সেখানে জেতা ম্যাচে একটু বেশিই—২৩.৮০। এতেই স্পষ্ট যে দলের সাফল্যে মুশফিকের পারফরম্যান্সের গ্রাফ ঊর্ধ্বমুখীই।

 

 

 

 

 

সেটি আজও একই রকম থাকার প্রত্যাশায় পুরো বাংলাদেশ। ২০১৬-র টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ম্যাচে নিজের ভুলে ভারতের বিপক্ষে জেতা ম্যাচ হারার প্রায়শ্চিত্ত করেছেন দিল্লিতে। তবু তো অনেক জ্বালা জুড়িয়ে নেওয়ার আছে মুশফিকের। ভারতের বিপক্ষেই যে নিজের ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ৫৫ বলে অপরাজিত ৭২ রানের ইনিংসটি বিফলে গিয়েছিল। সেটি গত বছরের মার্চে কলম্বোয় ত্রিদেশীয় নিদাহাস ট্রফিতে।

 

 

 

 

 

ভারতের ১৭৬ রান তাড়ায় মুশফিকের ব্যাটেই টিকে ছিল বাংলাদেশের জয়ের আশা। কিন্তু ১৭ রানের হারে বিলীন হয় তা। টি-টোয়েন্টিতে ভারতের বিপক্ষে প্রথম জয়টি তো ধরা দিতে পারত সেই ম্যাচেও। শেষ বলে নিষ্পত্তি হওয়া ফাইনালেও তা ধরা দেয়নি। তবে লিগ পর্বে দ্বিতীয়বার ভারতের মুখোমুখি হওয়ার আগের ম্যাচেও মুশফিকের ব্যাটেই রেকর্ড গড়ে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ।

 

 

 

 

 

সেই ইনিংসটিও অপরাজিত ৭২ রানের। তবে ৫ বাউন্ডারি ও ৪ ছক্কায় সে ইনিংসটি খেলেছিলেন মাত্র ৩৫ বলে। ওই ইনিংসে নিজেদের ইতিহাস সর্বোচ্চ ২১৪ রান তাড়া করে জিতেছিল বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টিতেই যা চতুর্থ সর্বোচ্চ রান তাড়ার রেকর্ড হয়ে আছে। ছোটখাটো মুশফিকের বিস্ফোরক সেই ইনিংসটি আরেকটি ক্ষেত্রেও উজ্জ্বল হয়ে আছে।

 

 

 

 

এই ফরম্যাটে পঞ্চাশ পেরোনো ইনিংস খেলা বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্ট্রাইক রেটও (২০৫.৭১) তাঁরই। সর্বোচ্চ ২২৫.৯২ স্ট্রাইক রেটের রেকর্ড এখনো মোহাম্মদ আশরাফুলেরই দখলে। ২০০৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টির প্রথম বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাত্র ২৭ বলে তিনি খেলেছিলেন ৬১ রানের ম্যাচ জেতানো ইনিংস। যেটি ছিল এই ফরম্যাটে বাংলাদেশের প্রথম বড় জয়।

 

 

 

 

 

ওই আসরের চ্যাম্পিয়ন ভারত পরের এক যুগে টি-টোয়েন্টিতে ক্রমেই আরো শক্তিধর দল হয়ে উঠেছে। গত বেশ কয়েক বছরে অবশ্য বাংলাদেশ তাদের নিয়মিতই কাঁপিয়েছে। তবু ‘প্রথম’ জয় ধরা দিচ্ছিল না কিছুতেই। দিচ্ছিল না কখনো নিজেদের ভুলে, কখনো আগাম উৎসবের আতিশয্যে কিংবা কখনো স্রেফ দুর্ভাগ্যে।

 

 

 

 

 

এভাবে বারবার জয়ের চৌকাঠ থেকে ফিরে আসার শিক্ষায় এবার সেই জয়টি কিনা ধরা দিল ভারতের মাটিতেই। তাও আবার ভুল থেকে শিক্ষা নেওয়া মুশফিকের ব্যাটে। পারফরম করেও যাঁকে অনেক সময়ই অন্যের ছায়ায় ঢাকা পড়ে থাকতে হয়। দিল্লিতে অবশ্য সব আলোই কেড়ে নিয়েছিলেন। আজ আরেকবার নিলেই প্রথমবারের মতো আরেকটি সাফল্যের নাগাল পেয়ে যায় বাংলাদেশ!

এই বিভাগের আরো খবর :

ফুটবলারদের প্রতি ফিফার ব্যবহার খুব খারাপ : ম্যারাডোনা
ভারত না খেললেও পাকিস্তান ক্রিকেট মরবে না
চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে মুখোমুখি যারা
তামিম অধিনায়ক হয়ে দেশ ছাড়ার আগে যে কথা বলে গেলেন
২৩ যুবতীকে শয্যাসঙ্গী,‘মেসি’র পরিচয়ে
আইপিএলের নিলামে উঠতে চান বাংলাদেশের ৬ ক্রিকেটার
১০৬ রানে অলআউট বাংলাদেশ
ক্রিস গেইলের ধর্ম পরিবর্তন নিয়ে গুজব
বাড়ি ভাড়া দিতে গিয়েই ফতুর কোহলি‍!
আরও এক ম্যাচে ম্যাথুজকে পাচ্ছে না শ্রীলঙ্কা
সুখে নেই রোনালদো, বন্ধ ম্যানইউর দরজা!
বাংলাদেশের দারুণ জয়ে বাংলা গানের লাইন লিখলেন ইয়ান পন্ট
বেকহ্যামের ভাস্কর্য স্থাপিত হচ্ছে আমেরিকায়!
টাইগারদের পেস বোলিংয়ে ল্যাঙ্গেভেল্ট,স্পিন কোচ ভেট্টরি