প্রথমবার্তা, রিপোর্ট:    ইরানে চলমান বিক্ষোভের মধ্যে নিপীড়নের ছবি ও তথ্য পাঠাতে দেশটির সরকারবিরোধীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। এসময় ইসলামিক প্রজাতন্ত্রটির ওপর নিষেধাজ্ঞার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

 

 

 

 

 

দেশটিতে জ্বালানি তেলের দাম ২০০ ভাগেরও বেশি বাড়ানোয় গত শুক্রবার থেকে সড়কে বিক্ষোভে নামেন হাজার হাজার ইরানি।এতে বেশ কয়েকটি শহুরে কেন্দ্রে অস্থিরতা ও সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছে। বিক্ষোভের সময় পুলিশ স্টেশনে হামলা, পেট্রোল পাম্পে অগ্নিসংযোগ ও দোকানপাটে লুটতরাজের ঘটনা ঘটেছে।এক টুইট পোস্টে পম্পে বলেন, আমি ইরানি বিক্ষোভকারীদের আহ্বান জানাচ্ছি, আপনারা সরকারের ধরপাকড়ের ছবি, ভিডিও ও তথ্য আমাদের কাছে পাঠান। এতে নিপীড়নের ঘটনা বিশ্ববাসীর কাছে প্রকাশিত হয়ে যাবে ও দেশটির ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে।

 

 

 

 

 

ইরানে ইন্টারনেট সম্পূর্ণভাবে বন্ধ থাকায় সহিংসতার ঘটনার তথ্য পাওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে বলে খবরে দাবি করা হয়েছে।সরকারিভাবে এখন পর্যন্ত পাঁচজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করা হয়েছে, যাদের মধ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরাও রয়েছে।তবে ব্রিটেনভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টান্যাশনালের দাবি, বিক্ষোভে সত্যিকারের নিহতের ঘটনা শতাধিক।

 

 

 

 

 

 

 

বৃহস্পতিবার দিনের শুরুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, মৃত্যু ও মর্মান্তিক ঘটনাবলী ধামাচাপা দিতে ইরানি সরকার ইন্টারনেট বন্ধ করে দিয়েছে।তিনি বলেন, ইরান এতোটাই অস্থির হয়ে পড়েছে যে দেশটির সরকার ইন্টারনেট বন্ধ করে দিয়েছে। এতে দেশের মধ্যে ঘটে যাওয়া ব্যাপক সহিংসতা নিয়ে ইরানি লোকজন কথা বলতে পারছেন না।