প্রথমবার্তা, নিজস্ব প্রতিবেদক:     রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার ব্যাপারে বাগদাদের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আরোপের হুমকির কথা নাকচ করে দিয়েছেন ইরাকের জাতীয় সংসদের একজন সদস্য। তিনি বলেছেন, এই ধরনের চাপ বাস্তবতার ধারে কাছেও নেই।

 

 

 

 

ইরাকের নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সদস্য আলী আল-গানমি আরবি ভাষার পত্রিকা বাগদাদ টুডে-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন।তিনি বলেন, ইরাকের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে হলে আমেরিকার সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী সংস্থার অনুমোদন লাগবে।

 

 

 

 

তিনি বলেন, রাশিয়া থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কিনলে বাগদাদের ওপর বাহ্যত নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হতে পারে কিন্তু বাস্তবে তা কার্যকর হবে না।

 

 

 

 

আলী আল গানমি বলেন, সংবিধান অনুসারে ইরাক অস্ত্রশস্ত্র কেনার ব্যাপারে স্বাধীন এবং প্রয়োজনের সময় যেকোনও ধরনের সামরিক সরঞ্জাম কিনতে পারে।

 

 

 

 

তিনি জানান, রাশিয়া থেকে এস-৪০০ কিনলে রাশিয়ার তত্ত্বাবধান প্রয়োজন হবে এবং ইরাকি সেনা সদস্যদেরকে রাশিয়ার পক্ষ থেকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার প্রয়োজন থাকবে।

 

 

 

 

গত ১০ জানুয়ারি ইরাকের কয়েকজন সংসদ সদস্য জানান, ইরাক সরকার রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাগদাদকে ওয়াশিংটন সামরিক সহায়তা দেওয়া বন্ধ করতে পারে এমন উদ্বেগ থেকে ইরাক সরকার এ চিন্তা করছে।

 

 

 

 

ইরাকের একজন সংসদ সদস্য জানিয়েছেন, এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কেনার বিষয়ে রাশিয়ার সঙ্গে আলাপ-আলোচনা চলছে তবে এখনও কোনও চুক্তি হয়নি।

 

 

 

 

ইরাকের কোনও কোনও সংসদ সদস্য বলছেন, প্রয়োজনীয় অস্ত্র সরবরাহের ব্যাপারে আমেরিকা বাগদাদকে বারবার হতাশ করার কারণে তারা রাশিয়া থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার চেষ্টা চালাচ্ছেন।

 

 

 

 

 

ইরাকের নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা বিষয়ক সংসদীয় কমিটির আরেক সদস্য বলেন, “আমরা প্রধানমন্ত্রীকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার বিষয়ে পূর্ণ কর্তৃত্ব দিয়েছি এবং বলেছি, রাশিয়া অথবা অন্য যে দেশ থেকে সম্ভব সেখান থেকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার ব্যবস্থা করুন।” সূত্র: পার্সটুডে

এই বিভাগের আরো খবর :

সেই সাহসী দুই শিশুকে পাকশী রেল কর্তৃপক্ষের সংবর্ধনা
২৬ এপিসোডে ৭৮ কোটি নিচ্ছেন সালমান!
ম্যাককালাম সেমিফাইনালে দেখছেন না বাংলাদেশকে
দিনাজপুরের দুই মটরসাইকেলের সংঘর্ষে নিহত ৩ আহত ১
নার্সকে ডেকে এনে তিন বন্ধু মিলে সংঘবদ্ধ ধ’র্ষণ
আফগানিস্তানে যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত হওয়া নিয়ে ধুম্রজাল
দার্জিলিংয়ে বন্য হাতির আক্রমণে জাসদ নেতা নিহত
পাইলটের ধূমপানে ৬ হাজার মিটার নিচে নামল বিমান!
ভাগ্যের জোরে বেঁচে গেল পিএসজি!
১৭ আজব চাকরি
এই লেন হাইকোর্টের কাগজ, খুব ভোগান্তি দিলেন: ইসিকে হিরো আলম
থানাতে পুলিশের ম্যাসাজ নারী সহকর্মীকে দিয়ে!
আপনার শরীরে মারাত্মক কোনো রোগ হয়েছে বুঝবেন যে ১০ লক্ষণে
নতুন বান্ধবী নিয়ে হাজির নেইমার
তালতলীতে ইউপি নির্বাচনের প্রার্থী বাছাইয়ে উপজেলা আ’লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত