প্রথমবার্তা, নিজস্ব প্রতিবেদক:     আমাদের জীবনে থাকে আনন্দ থাকে বেদনা। আমাদের জীবনে থাকে সফলতা, থাকে ব্যর্থতা। আমরা জীবনে পথ চলতে চলতে একটা বদ অভ্যাস আমাদের মধ্যে তৈরি হয় যে আমরা নিজেদের দোষটাকে ঢেকে রাখি আর অন্য চারিদিক থেকে অন্যদের দোষারোপ করি। সবার আগে দোষারোপ করি ইয়ার প্ল্যানারদের।

 

 

 

 

যেমন, এই গ্রহ আমার খারাপ করছে, ওই গ্রহ আমার খারাপ করছে। কিন্তু পথ চলতে গিয়ে ছোট ছোট ভুলগুলো করি সেই ভুলগুলোকে আমরা কখনো শোধরাতে চাই না। আপনার জীবনের সফলতা বা ব্যর্থতা, আপনি আনন্দে থাকবেন না দুঃখে কাটাবেন, আপনি জীবনে কতটা উপরে উঠবেন নাকি নিচে নামবেন, আপনার মনে শান্তির বিস্তার ঘটবে নাকি শান্তি আসবে না, জ্ঞানের পিপাসা আছে কী আপনার? আমাদের সবার জীবনে একটা মন্দির আছে। মন্দিরে আমরা সবথেকে বেশি সুখ ভোগ করি।

 

 

 

 

আপনার জীবনের মন্দির কোথায় তা খুঁজে বের করুন। আপনার জীবনের মন্দির হচ্ছে আপনার বাস্তু। আপনার বাস্তুটাকে যত সুখী রেখেছেন আপনার মনের শান্তিও তত বেড়েছে। সবার আগে বাসা থেকে আপনি কাজের উদ্দেশ্যে বের হচ্ছেন আবার কাজকর্ম সেরে সেই বাড়িতেই ফিরছেন। সেখানেই রেস্ট নিচ্ছেন। অর্থাৎ এটা আপনার একটা বিশ্রামাগার। আপনি সুন্দর ভাবে এখানে বিশ্রাম নিতে নিবেন, আপনার সারাদিনের কাজের রিল্যাক্সেশনর জায়গা, আবার নতুন করে রিএনারাইজ হবার ও ভালো পজেটিভ এনার্জি নিয়ে বাড়ি থেকে বের হবেন আর সফলতার শীর্ষে পৌছানোর চেষ্টায় অংশ নিবেন।

 

 

 

 

তাই প্রথমেই আপনার বাস্তুটাকে সঠিক নিয়মে রাখতে হবেই আপনাকে। বাড়িটাকে তাই সবার আগেই সুন্দর করতে হবে। ২০২০ থেকেই শুরু করুন বাড়ি সুন্দরের কাজ। যে ঘরে আলোর দরকার নেই সেখানে লাইট নিভিয়ে রাখুন। পাখার দরকার না হলে পাখাটা বন্ধ রাখুন। বিদ্যুতের অপব্যয় রোধ করতে পারলে সফলতা আসবেই। এরপর দ্বিতীয়তে আপনি বাড়িটে মানিপ্ল্যান্ট রাখুন। বাশ গাছের ছোট শো পিছ রাখতে পারেন। নর্থ ইস্ট কর্ণারে রাখুন এটি যা আপনার গোর্থ অনেকাংশ বাড়িয়ে দিবে।

 

 

 

 

আপনার বাস্তুভূমির মাথা নর্থ ইস্ট কর্ণার। সেখানে এটি বিরাজ করবে। আর গ্রোর্থ মাথা থেকেই আসে। এরপর আসি তৃতীয় নাম্বারে, আপনার নিত্য প্রয়োজনীয় মোবাইলে একশো পার্সেন্ট চার্জ রাখুন। রাহু সবসময় এনার্জির জোরে চলে। আপনি যত এনার্জি পূর্ণ হবেন আপনার কাজকর্ম তত ভালো হবে সফলতা তত আসবে। এরপর চতুর্থ নাম্বারে বাড়িতে একটি গণেশ রাখুন।

 

 

 

 

 

গণেশের পেট মোটা ও সুর থাকতে হবে। সুরটি ডান পাশে ঘোরানো হতে হবে। এতে আপনার সফলতার হার অনেক গুণ বেড়ে যাবে। পাঁচ নাম্বারে আপনি আপনার বাড়িতে এমন একটি ছবি রাখুন যাতে সূর্য ওঠার দৃশ্য রয়েছে। পাহাড়ের মাঝখান থেকে সূর্য উঠছে। অর্থাৎ সূর্য উদয় হচ্ছে। অর্থাৎ এনার্জি বাড়ছে বা গ্রোথ হচ্ছে। আপনি এমন একটি ছবি দেখে বের হলে আপনার দিন ভালো যাবে ও সফলতা সহজেই আসবে।

এই বিভাগের আরো খবর :

গোয়েন্দারা খতিয়ে দেখছেন, জিকে শামীমের কর ফাঁকি
বেনাপোল সীমান্তে ৩৪ পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার
জিয়াউর রহমানের ছবি কলকাতার বিভিন্ন সড়কে!
‘সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ-মাদক নির্মূলই প্রধান চ্যালেঞ্জ’
ঝিনাইদহে ১৫ দিনব্যাপী যাত্রা উৎসব শুরু অশ্লীলতার বিরুদ্ধে নির্মল যাত্রা
বোনের নির্বাচনী প্রচারে যা বললেন সোহেল তাজ
শরণার্থী ফুটবলার আরাবিকে মুক্তি দিতে অস্ট্রেলিয়ার আহ্বান
বাবা-মা’র কথাতেই শ্রীরাম নেনেকে বিয়ে করেন মাধুরী‚ আর উনি নাকি জানতেনই না মাধুরী যে..
রোজায় অজ্ঞান হওয়ার কারণ ও প্রতিকার
সৌদি যুবরাজকে জাতিসংঘ মহাসচিবের ফোন
অভ্যুত্থানের চেষ্টা চলছে: মমতা
গ্রিন ইন্ডাস্ট্রিয়ালাইজেশন সরকারের অঙ্গীকার: শিল্পমন্ত্রী
অ্যান্ডির মরদেহ নিতে কলম্বো থেকে ঢাকার পথে স্বজনরা
গুরুতর অসুস্থ নায়িকার পাশে কেউ নেই; আছেন সালমান খান
বন্ডের সঙ্গে মিন্নির আপত্তিকর ভিডিও নিয়ে বিস্ফোরক তথ্য মিললো