প্রথমবার্তা,নিজস্ব প্রতিবেদক:   সঙ্গীকে ছেড়ে থাকতে পারছেন না বলেই হয়তো ভাবছেন এবার মিটমাট করে নেবেন। কিন্তু একবার সম্পর্ক ভেঙে গেলে তা যে সহজে জোড়া লাগে না সেটা যাদের ভেঙ্গেছে তারাই জানেন।

 

 

 

 

আসলে প্রেম জিনিসটা কাঁচের মতোই সূক্ষ্ম। তবুও অনেক সম্পর্কে ভাঙার পরও তা ফিরে আসে জীবনে। নতুনভাবে উপলব্ধি হয় পুরনো সম্পর্ক। অন্যদিকে যে সম্পর্ক জোড়া লাগার নয় তা প্রাণান্তকর চেষ্টাতেও ফিরে আসে না।

 

 

 

 

বিশেষজ্ঞদের মতে, তবুও ছেড়ে গেছে এমন সঙ্গী-সঙ্গিনীকে জীবনে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা বিশেষ উপায়ে করা যেতেই পারে। উপায়গুলো জেনে নেয়া যাক।

 

 

 

প্রথমেই সুস্থ মস্তিষ্কে চিন্তা করুন, কেন ফিরে আসতে চাইছেন? কী কারণ? সেই কারণটা যদি পরিষ্কারভাবে জানা থাকে, তবেই সিদ্ধান্ত নিয়ে এগোন। পিছিয়ে আসার উপায়ও রয়েছে। এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরা জানান, সাবেকের কাছে ফিরে যাওয়ার ৪টি কারণ থাকতে পারে।

 

 

 

১. শারীরিক কারণ :
প্রাক্তনীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কটাকেই মিস করছেন কিনা ভালো করে ভেবে দেখুন। এ ব্যাপারে নিজের কাছে সৎ থাকার চেষ্টা করুন। উত্তর যদি হ্যাঁ হয়, একেবারেই এগোবেন না। শারীরিক সম্পর্কের ওপর ভিত্তি করে সম্পর্কই টিকে থাকে না। থাকলেও সেটা ক্ষণস্থায়ী। সেই কারণে যদি আবার সম্পর্ক শুরুও হয়, জানবেন ফের ভাঙন ধরবে। এ ধরনের সম্পর্ক তৈরি হলে নিজের সঙ্গীকে বাদে অন্য ব্যক্তির প্রতি আকর্ষণ তৈরি হওয়ার সুযোগও অনেক।

 

 

 

 

২. আর্থিক কারণ :
হতেই পারে সঙ্গীর ওপর আপনি আর্থিকভাবে নির্ভরশীল ছিলেন। এখন সম্পর্ক নেই বলে আর্থিক অনটনে পড়েছেন। এটা কারণ হলে ফের সম্পর্ক না এগোনোই ভালো। নিজেকে প্রশ্ন করুন উত্তর পেয়ে যাবেন।

 

 

 

 

৩. সামাজিক কারণ :
আপনাদের সম্পর্কের কথা নিশ্চয়ই সবাই জানতেন। ভাঙনের খবরও বন্ধু-স্বজনরা পেয়েছেন। নানা প্রশ্নে জর্জরিত হতে হয় আপনাকে। স্রেফ এর হাত থেকে নিস্তার পেতে সাবেকের কাছে ফিরে যাওয়া অর্থহীন। সামান্য মতোবিরোধে আবারো ভাঙবে সম্পর্ক। সেই ভাঙন হবে আরো ভয়ানক।

 

 

 

 

৪. মানসিক কারণ :
এই একটি মাত্র কারণ থাকলেই ফিরে যেতে পারেন। হতেই পারে আপনি তাকে ভুলতেই পারছেন না। তাকে একবার না দেখে থাকতেই পারছেন না। এমনটা হলেই ফিরে আসা যায়। এটাই আসল ভালোবাসা।

 

 

 

 

ফিরে আসার জন্য সঙ্গী-সঙ্গিনীকে মেসেজে বা চিঠিতে লিখতে পারেন যে আপনি সব ভুলে ফিরে আসতে চাইছেন। সেও যদি ফিরে আসতে রাজি থাকে মিটমাট করে নিন।

 

 

 

 

কিন্তু সে ব্যাপারে তার ওপর জোর খাটাবেন না। নিজেকে বোঝান বর্তমান পরিস্থিতির ওপর ভিত্তি করে তার হয়তো আর ফিরে আসা সম্ভব নয়। এ নিয়ে আর কথা বাড়ানোও আপনার পক্ষে শোভনীয় হবে না।

 

 

 

 

উল্টো তিনিই যদি ফিরে আসতে চান, তবে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে নিন। সব ভুল শুধরে নেওয়ার চেষ্টা করুন। সম্পর্ক জিইয়ে রাখার এটাই শেষ সুযোগ।

এই বিভাগের আরো খবর :

বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে কলেজ ছাত্রীকে কুপিয়ে হত্যা
খোলামেলা যা বললেন সেই মিন্নি.....
জরায়ুর ক্যান্সার চিকিৎসা হোমিও সমাধান
ভূঞাপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস পালিত
ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি পাকিস্তানের সঙ্গে উন্নতি?
এবারও বন্যার শঙ্কায় লক্ষাধিক মানুষ নির্মাণের ৩৫ বছরেও সংস্কার হয়নি আত্রাই নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ
আজকের দিনটি কেমন যাবে। রাশিফল ২০.১.২০১৯
“ক্যান্সারে চাই পরিত্রান”
বিএনপি রাজনৈতিক দল নয়, আওয়ামী লীগ বিরোধী প্ল্যাটফর্ম
‘ভুলভুলাইয়া ২’-এ নতুন জুটি কার্তিক-কিয়ারা
কোন বিয়ে বেশি সুখের হয়? প্রেমের নাকি পারিবারিক? যা বলছে গবেষণা
জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে পর্দা নামলো ড্যাফোডিল আইসিটি কার্নিভাল ২০১৮
বুদ্ধিজীবী দিবসে নওগাঁয় ৪৭শ আলোক প্রজ্জ্বলন
মোস্তফা গ্রুপের চেয়ারম্যান জেলে,১৪৩১ কোটি টাকা ঋণ খেলাপ
ঝগড়া করেননি; পারফর্মেন্সও অনুজ্জ্বল স্টোকস