প্রথমবার্তা,নিজস্ব প্রতিবেদক:    সৌদি আরবে সমকামিতার শাস্তি মৃত্যুদণ্ড। আর তাই সৌদি আরব থেকে পালিয়ে লন্ডনে আশ্রয় নেন ফাদ এবং নাজঁ নামের সমকামী দুই নারী। এবার প্রকাশ্যেই একটি আরবি টিভি চ্যানেলে দেয়া সাক্ষাতকারে নিজেদের সমকামী জীবন নিয়ে মুখ খুললেন তারা।

 

 

 

 

নাজঁ জানান, স্ন্যাপচ্যাট থেকেই তিনি ফাদের সঙ্গে প্রেমের বন্ধনে আবদ্ধ হন। কিশোরী অবস্থা থেকেই নাজঁ বুঝতে পারেন যে তিনি একটু আলাদা। আর তখন থেকেই তিনি ছেলেদের পোশাক পড়তে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করতেন। তবে এতে পরিবারের বাধা ছিল বলেও জানান নাজঁ।

 

 

 

 

ওই টিভি চ্যানেল সমাকামী নারী যুগলের সৌদি আরবে থাকাকালীন এবং বর্তমানের বিভিন্ন ছবি প্রকাশ করেছে। ইসলামিক দেশগুলোতে সমকামিতার বিষয়ে কঠোর আইন রয়েছে। আর তাই ২০১৮ সালে লন্ডনে আসার পর ফাদ এবং নাজঁ রাজনৈতিক আশ্রয় পান।

 

 

 

 

 

টেলিভিশন শোতে এসে সমকামিতার কথা জানানো নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এই নিয়ে একজন লেখেন, প্রত্যেকের স্বাধীনতা আছে তারা যা চায় সেটি করার। এর বিরোধিতা করে আরেকজন লেখেন, শেষ পর্যন্ত এটি তাদের ইচ্ছা, তবে টিভিতে এসে বলার কি আছে এ নিয়ে?

এই বিভাগের আরো খবর :

মানুষের গোপনতম যৌন আকাঙ্ক্ষা প্রকাশ্যে আনল GOOGLE
ভেনেজুয়েলায় রাজপথে মুখোমুখি দুই প্রেসিডেন্ট সমর্থকরা
ঈদের দিন থাকবে বৃষ্টিমুখর
মা-মেয়ে উভয়ের সাথেই ডেট করতে চান কার্তিক !
বুমরাহর তোপে ফলো অনে অস্ট্রেলিয়া
এক মঞ্চেই কাঁদলেন আ’লীগের ৩ নেতা
ইউএফও’র ছবি তুলতে সিআইএ’র পরামর্শ
‘দেশে যুব বেকারত্বের হার ৪৮ শতাংশ, শিক্ষিত বেকার ৩৩ ভাগ’
দরকারি উপকারী অথচ অবৈধ যানবাহন, কে দেখবে এসব?
আইএস'র প্রচার যন্ত্র কি হঠাৎ নিশ্চুপ হয়ে গেছে?
অতিষ্ঠ জনজীবন দাবদাহে...
কুড়িগ্রাম কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত
ছাতকে ৫শ’ পিস ইয়াবাসহ একব্যক্তি উদ্ধার
হাইকোর্টের রায়ই বহাল মুক্তিযোদ্ধাদের ন্যূনতম বয়স নির্ধারণে
কেবল আমল দিয়েই জান্নাত লাভ সম্ভব?