প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: ‘অনুগ্রহ করে কেউ আমার কাছে আসবেন না। আপনারা আমার কাছে আসলে আপনাদের আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা আছে। আমি সম্ভবত করোনায় আক্রান্ত।’ সোমবার সন্ধ্যায় ঢাকা থেকে বরগুনাগামী এম ভি শাহরুখ-২ লঞ্চের এক যাত্রীর জ্বর, কাশি এবং মাথা ব্যথা থাকায় তার সহযাত্রীদের এভাবেই সতর্ক করেন তিনি।

 

 

 

 

 

আর এ বিষয়টি জানাজানি এক পর্যায়ে পুরো লঞ্চের জুড়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে শত শত যাত্রী। এমন পরিস্থিতিতে ওই যাত্রীকে একটি কেবিনে আবদ্ধ করে রাখে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ।

 

 

 

প্রত্যক্ষদর্শী ও লঞ্চ কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে জানা গেছে, রাতে ওই যাত্রীর সঙ্গে তার পরিচিত কিছু যাত্রী কুশল বিনিময় করার জন্য গেলে তিনি তাদেরকে বলেন, আমার কাছে আসবেন না আমার সমস্যা আছে আমার শরীর খারাপ। আর এ বিষয়টি লঞ্চের যাত্রীদের মধ্যে জানাজানি হয়ে গেলে পুরো লঞ্চের জুড়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে যাত্রীরা।

 

 

 

 

পরে আজ মঙ্গলবার সকালে লঞ্চটি বরগুনা পৌঁছালে বরগুনা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক এবং বরগুনা সদর থানার পুলিশ ওই যাত্রীকে লঞ্চ থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করে।

 

 

 

 

বরগুনা জেনারেল হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ওই যাত্রীর বাড়ি বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায়। তিনি ঢাকায় কর্মরত ছিলেন। ওই যাত্রী বর্তমানে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিটে রয়েছেন।

 

 

 

 

তার করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করার জন্য ইতিমধ্যেই ঢাকার রোগ তত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা কেন্দ্রে (আইইডিসিআর) যোগাযোগ করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

 

 

 

 

 

এ বিষয়ে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সোহরাব উদ্দিন বলেন, আমরা ওই রোগীকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে আইসোলেশন রেখেছি। আমরা তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি।

এই বিভাগের আরো খবর :