প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: ইউরোপজুড়েই চলছে  প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস। ইউরোপের দেশ ইতালির ভয়াবহ অবস্থার মাঝেও আশাজাগানিয়া ছবি ফুটে উঠছে। আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফেরার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।

 

 

 

 

 

গত একদিনেই দেশটিতে ১ হাজার ৪৮০ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী চিকিৎসার মাধ্যমে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। আর এখন পর্যন্ত ইতালিতে সুস্থ হয়েছেন ১৯ হাজার ৭৫৮ জন। শুক্রবার (৩ এপ্রিল) নিয়মিত প্রেস ব্রিফিংয়ে নাগরিক সুরক্ষা সংস্থার প্রধান অ্যাঞ্জেলো বোরেল্লি এসব তথ্য জানিয়েছেন।

 

 

 

 

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৭৬৬ জন ও নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৫৮৫ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১৪ হাজার ৬৮৪ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ১৯ হাজার ৮২৭ জন।

 

 

 

 

 

এদিকে, করোনায় ইতালিতে আক্রান্ত হয়ে তিন বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে কতজন বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তার সঠিক তথ্য এখনো জানা যায়নি।

 

 

 

 

গত কয়েক দিনে ৩ বাংলাদেশির মৃত্যুতে ইতালিতে বাংলা কমিউনিটিতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।গতকাল শুক্রবার ইতালিতে জরুরি অবস্থা জারির শেষ দিন হলেও ফের ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে লকডাউনের সময়।

 

 

 

 

ইতালিকে বাঁচাতে দেশটির সরকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছেন। দেশটির প্রায় ৬ কোটি নাগরিকদের সব ধরনের সুযোগ-সুবিধা, খাদ্যসামগ্রীর নিশ্চয়তার জন্য সামরিক বাহিনীর সদস্যরা কাজ করে যাচ্ছেন।

 

 

 

 

 

ইতালির প্রধানমন্ত্রী জোসেপ্পে কন্তের আহ্বানে সাড়া দিয়ে দেশের এই দুর্দিনে ৭২২০ জন অবসরপ্রাপ্ত ডাক্তার, নার্স ও অ্যাম্বুলেন্স কর্মী স্বাস্থ্যসেবা দিতে করোনা আক্রান্তদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। এই ক্রান্তিকালে ইতালী সরকার সবাইকে ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়েছে।

 

 

 

 

 

এদিকে, বিভিন্ন সংস্থা প্রতিটি সিসি কর্পোরেশনের বাসিন্দাদের মাঝে বিনামূল্যে মাস্ক  বিতরণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। এদিক দিয়ে পিছিয়ে নেই বাংলাদেশিরাও।

 

 

 

 

অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি  মনিরুজ্জামান মুনিরের উদ্যোগে করোনাভাইরাস আক্রান্তদের সাহায্যার্থে রোম ডোনেশন ফর কভিড ১৯ ইতালি-বাংলাদেশ অর্থ উওোলন শুরু করেছে।

 

 

 

 

এছাড়াও ভেনিস শহরে প্রবাসী বাংলাদেশিরা অর্থ ওঠানো  শুরু করেছেন, যে অর্থ ভেনোতোর প্রেসিডেন্ট লুকা জায়ার হাতে তুলে দেয়া হবে করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য।

 

 

 

 

 

ইতালির শিপিং ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান বাবু আরকো বালেনো এসআরএল এর পক্ষে ভেনিসের আঞ্জেলো হাসপাতালে ডাক্তারদের জন্য ২ শ পিস করোনা প্রতিরোদক কাপড়, জুতার কাভার, সিটি করপোরেশন পুলিশের জন্য ১ শ পিস কাপড় ও আনকোনা শহরে তরেত্বে হাসপাতালে ডাক্তারদের জন্য ৭৫ পিস কাপড় ও ৫০ পিস জুতার কাভার বিতরণ করেন।

 

 

 

 

 

এছাড়াও  ইতালির বিভিন্ন শহরে প্রবাসী বাংলাদেশিরা করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসায় সহায়তার জন্য অর্থ ওঠানো কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

এই বিভাগের আরো খবর :

আশা জাগাচ্ছেন অনূর্ধ্ব ১৯ দলের ক্রিকেটাররা
লকডাউন গাজীপুর মহানগর
বোরকা পরে প্রকাশ্যে সারা
তুলসী গাছে জবা ফুল!
এই পুরুষাঙ্গ-তাবিজই ভাগ্য ফেরাত রোমানদের!
শেষ ম্যাচ খেলছেন মাশরাফি পাকিস্তানের বিপক্ষেই!
জাতীয় দলের জায়গাটা 'নোংরা' হয়ে গেছে; আর থাকতে চান না সুজন!
কেউ বলতে পারবে না দুর্বল অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছি: রবি শাস্ত্রী
নবজাতকের মৃতদেহ হাতিরঝিলে ভাসমান প্যাকেটে
২৫০ বছর পরে জেগে উঠল সুপ্ত আগ্নেয়গিরি!
স্বৈরাচারী তকমা নিয়ে আ.লীগ স্বাধীনতাকে ম্লাণ করেছে : ঈসা
বৃদ্ধ গ্রেপ্তার, ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা ৬৫ বছর বয়সে.....
নিজের পোষা সাপের কামড়ে মৃত্যু সাপুড়ের
কটাক্ষের শিকার নুসরাত খোলামেলা পোশাকের জন্য.....
৬০ বছরের নাইজেরিয়ান বর, ১৫ বছরের ভারতীয় কনে!