প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সিঙ্গাপুরে বন্ধ রয়েছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। তবে শিক্ষার্থীদের ক্ষতি পোষাতে অনলাইনে ক্লাস নেয়ার ব্যবস্থা করেছে দেশটির সরকার। তবে সেখানেও বাধ সেধেছে হ্যাকাররা। তাদের কবলে পড়ে ভিডিও কনফারেন্সিং অ্যাপ জুম ব্যবহার করে ক্লাস নেয়া বন্ধ করে দিয়েছে সিঙ্গাপুর।

 

 

 

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের তথ্যমতে, সম্প্রতি অনলাইনে একটি ভূগোল ক্লাসে হঠাৎই স্ক্রিনের ওপর অশালীন ছবি ভেসে ওঠে এবং অচেনা মানুষেরা ছাত্রীদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করতে থাকে।

 

 

 

সিঙ্গাপুরের শিক্ষাপ্রযুক্তি মন্ত্রী অ্যারোন লোহ বলেন, ‘এগুলো খুবই গুরুতর ঘটনা। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ঘটনাগুলো তদন্ত করছে এবং পুলিশের কাছে অভিযোগও করবে।’ তবে ঘটনার বিষয়ে এর বেশি কিছু জানাতে রাজি হননি তিনি।

 

 

 

 

অ্যারোন বলেন, সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে যতদিন নিরাপত্তা সমস্যার সমাধান না হচ্ছে ততদিন আমাদের শিক্ষকরা জুম ব্যবহার বন্ধ রাখবেন।

 

 

 

 

এছাড়া, অনলাইন ক্লাসে সংযুক্ত হওয়ার বিষয়ে অতিরিক্ত নিরাপত্তা প্রটোকল অনুসরণ এবং ক্লাসের লিংক শিক্ষার্থী ব্যতিত কারও সঙ্গে শেয়ার না করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে বলেও জানান মন্ত্রী।

 

 

 

 

নিরাপত্তা ঘাটতির বিষয়ে জুমের বিরুদ্ধে অভিযোগ অবশ্য এটাই প্রথম নয়। একই সমস্যার কারণে তাইওয়ান ও জার্মানি ইতোমধ্যেই ভিডিও অ্যাপটি নিষিদ্ধ করেছে। সবধরনের করপোরেট ল্যাপটপে জুমের ডেস্কটপ ভার্সন নিষিদ্ধ করেছে গুগল।

 

 

 

 

 

এছাড়া ক্যালিফোর্নিয়ার বারকেলে হাইস্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, জুমে তাদের একটি পাসওয়ার্ড সুরক্ষিত মিটিংয়ে হঠাৎ নগ্ন এক পুরুষ ঢুকে বর্ণবাদী গালি দেয়ার পর থেকেই ভিডিও অ্যাপটির ব্যবহার বন্ধ করে দিয়েছে তারা।