প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: করোনা আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। এরই মধ্যে হর হামেশা ঘটছে বিচিত্র সব ঘটনা। এবার গা শিউরে ওঠা এক ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। হাওয়াই অঙ্গরাজ্যেরে বেশ কিছু বাড়িওয়ালা ভাড়ার বিনিময়ে নারীদের কাছে যৌন আবেদন জানিয়েছে।

 

 

 

 

 

হাওয়াই অঙ্গরাজ্যে এই পর্যন্ত ভাড়ার বিনিময়ে যৌন অনুগ্রহ আবেদন করার বেশ কিছু ঘটনা রেকর্ড করা হয়েছে। অভিবাসন অ্যাটর্নি কেভিন ব্লক বলছেন, নারী ভাড়াটিয়া ভাড়া সম্পর্কে কথা বার্তা কথা বললেই তাদের গ্রাফিক যৌন চিত্রও পাঠানো হচ্ছে।

 

 

 

 

হাওয়াই স্টেট কমিশনের নির্বাহী পরিচালক খারা জাবোলা-ক্যারোলাস বলেছেন, বাড়িওয়ালাদের দ্বারা যৌন হয়রানির কারণে নারীরা তাদের বাড়িতে নিরাপদে বসবাস করতে পারছে না।

 

 

 

বাসা বাড়িতে নারীদের এমন কু প্রস্তাবের আগে থেকে পরিকল্পনা ছিলনা বলে বলছেন তিনি। তিনি আরো বলেন নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে আমরা যত দ্রুত সম্ভব তথ্য খুঁজে বের করব।

 

 

 

 

যদি কোন নারী বাড়িওয়ালা দ্বারা নির্যাতিত হয় তবে তার রেকর্ড রাখার জন্য একটি অনলাইন গাইড তৈরি করেছে হাওয়াই স্টেট কমিশন। কমিশনটি জরুরী ভাড়া বিষয়ক দিকনির্দেশনা দেবে এবং ওই সব বাড়িওয়ালাদের নামের তালিকা তৈরি করবে। এই ধরণের ঘটনা ঘটার ১৮০ দিনের মধ্যে এইচসিআরের কাছে রিপোর্ট করতে হবে। তারপরে তারা উপযুক্ত ব্যবস্থা নিবে।

 

 

 

 

বর্তমান পরিসংখ্যান অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রের মাত্র ৬৯ শতাংশ মানুষ এপ্রিল মাসের ভাড়া দিতে সমর্থ হচ্ছে। প্রাণঘাতী করোনার কারণে আর্থিক টানাপোড়েনে ভুগছে দেশটির বেশিরভাগ মানুষ।