প্রথমবার্তা, প্রতিবেদকঃ    ফার্নিচার কম্পানি আইকার একটি স্টোর। ক্রেতারা আসা যাওয়া করছেন, দামদস্তুর করছেন। সারি সারি সোফা আর বেডের মাঝেই একেবারে দিনের আলোতে হস্তমৈথুন করছেন একজন নারী! এ অশ্লীল ভিডিওর ক্লিপ ছড়িয়ে পড়েছে চীনজুড়ে। ঝড় তুলেছে অনলাইন জগতে। এ নিয়ে ইতিমধ্যে দুঃখ প্রকাশ করেছে সুইডিশ কম্পানিটি।

 

 

কি ঘটেছে? ভিডিওটিতে দেখা যায়, ফার্নিচারের শোরুমে বিভিন্ন সোফা ও বেডের মাঝেই একজন অর্ধনগ্ন নারী হস্তমৈথুন করছেন। আর তার পাশ দিয়েই হেটে যাচ্ছেন উদাসীন ক্রেতারা।

 

 

তিনি ভ্রক্ষেপও করছেন না।তবে ভিডিওটি ইতিমধ্যে চীনের সামাজিক মাধ্যম থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এ ভিডিওর জন্য সুইডিশ কম্পানিটি যে জবাব দিয়েছে তাও ৯০ লাখ দর্শনার্থী দেখেছে।

 

 

কোন শাখায় এ ঘটনাটি ঘটেছে তা প্রকাশ না করে এক বিবৃতিতে আইকা জানায়, আমরা দৃঢ়তার সঙ্গে এ ধরণের আচরণের নিন্দা জানাচ্ছি এবং এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের পুলিশকেও অবহিত করেছি।

 

 

ফার্নিচার কম্পানিটি জানায়, তারা তাদের স্টোরগুলোর ব্যাপারে আরো সতর্ক থাকবে এবং নিরাপত্তা মান নিশ্চিত করবে। সেই সঙ্গে সব ক্রেতাকে বলব, আপনারা শৃংখলার সঙ্গে ভদ্রোচিতভাবে আমাদের স্টোর ব্রাউজ করুন।

 

 

তবে যে নারী কাজটি করছিলেন এবং যিনি ভিডিও করেছেন তা প্রকাশ করেনি প্রতিষ্ঠানটি। ধারণা করা হচ্ছে এটি কুয়াংতুং প্রদেশের কোন একটি স্টোরে ঘটেছে।

 

 

ভিডিও দেখে হতভম্ব দর্শনার্থীরা নিশ্চিত যে এটি করোনার প্রাদুর্ভাবের আগে। কারণ ভিডিওতে কারো মুখে মাস্ক নেই। তবে সামাজিক মাধ্যমে পোস্টে অনেকেই এ নারীটির প্রশংসা করেছেন।

 

 

একজন লিখেছেন, ‘প্রকাশ্য দিনের আলোতেই সে কাজটি করছে, এ নারী অনেক সাহসী।’ এ লেখাটিতে ৮ হাজার লাইক পড়ে। অন্যজন লেখেন, ‘ চারদিকে অনেক মানুষ তারপরও সে কিভাবে করল কাজটি, বুঝতে পারছি না।’